ঢাকা ১১ বৈশাখ ১৪৩১, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
Khaborer Kagoj

বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি চুন্নুর

প্রকাশ: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:৫০ পিএম
বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি চুন্নুর
ছবি : সংগৃহীত

বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ দাবি করেন।

বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ বলেন, মানুষ এক দুর্বিষহ অবস্থার মধ্যে আছে। অস্বাভাবিক দ্রব্যমূল্যের কারণে সাধারণ মানুষ হিমশিম খাচ্ছে। কোনো নিয়ন্ত্রণ নাই। সরকারের পক্ষ থেকে তেমন কোনো সুপারভিশনও নাই। ফলে মানুষ অসহনীয় কষ্টে জীবনযাপন করছে। এই অবস্থার মধ্যে মাত্র নির্বাচনটা গেল, আজকেই দেখলাম সরকার বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিটে ৩৪ থেকে ৭০ পয়সা বৃদ্ধি করেছে। গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে। কারণটা বলেছে ডলারের ডিভ্যালুয়েশন এবং ভর্তুকি কমানো। প্রশ্ন হলো- আপনারা বাড়াবেন, ভদ্রভাষায় বলছেন সমন্বয়। মানে বৃদ্ধি কথাটাও সরকার বলে সমন্বয় করা, কিন্তু আসলে মূল্য বৃদ্ধি।

মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, আমার জানা নাই, বিদ্যুতের পার ইউনিট সরকারের উৎপাদন বা কিনতে গড় খরচ কত? সব সময় বলে আসছে হাজার হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে। ভর্তুকি কমাতে হবে। আগামী তিন বছরে ৪৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি কমাবে। কিন্তু কীভাবে কমাবে! জনগণ নিষ্পেষিত, বাজারে যেতে পারছে না। বেকারত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিদ্যুতের দাম বাড়া মানে এর সঙ্গে অনেক জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি পাবে। কারণ বিদ্যুতের সঙ্গে অনেক জিনিসের উৎপাদন জড়িত।

তিনি বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করেছেন। গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জসহ অনেক ফ্যাক্টরি যেগুলো গ্যাসনির্ভর, সেখানে গ্যাস দিতে পারছেন না সার্বক্ষণিকভাবে। সেখানে আবারও গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করেছেন। জনগণ অনেক আশা করে একটি সরকারকে মাত্র এক মাস আগে নির্বাচিত করল, আর সে সরকার জনগণের ওপর জগদ্দল পাথরের মতো এভাবে চেপে বসেছে।

তিনি আরও বলেন, দলের পক্ষ থেকে সরকারকে অনুরোধ করব অন্ততপক্ষে গ্যাসের দাম এবং বিদ্যুতের দামটা এই মুহূর্তে বৃদ্ধি করবেন না। সরকার একটা স্থিতিশীল অবস্থায় আসুক, মানুষ একটা স্থিতিশীল অবস্থায় আসুক, ইকোনমি একটা নরমাল অবস্থায় আসুক তখন আপনারা চিন্তা করেন। এখন অন্তত চিন্তাটা বাদ দেন।

পদে থেকেই উপজেলা নির্বাচন করতে পারবেন ইউপি চেয়ারম্যানরা

প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৩ এএম
পদে থেকেই উপজেলা নির্বাচন করতে পারবেন
ইউপি চেয়ারম্যানরা

ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) কুষ্টিয়া ও সিলেটের দুই ইউপি চেয়ারম্যানের করা রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

রিটের পক্ষে বক্তব্য উপস্থাপন করেন সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক। এ আদেশের ফলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে ইউপি চেয়ারম্যানদের পদত্যাগ করতে হবে না। তবে, তাদের আদালতের আদেশ নিতে হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

আদেশের পর ড. শাহদীন মালিক সাংবাদিকদের জানান, কুষ্টিয়া ও সিলেটের দুজন ইউপি চেয়ারম্যান পদত্যাগ না করেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পদত্যাগ না করায় স্ব স্ব রিটার্নিং কর্মকর্তা তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। পরে নির্বাচন কমিশনের আপিল কর্তৃপক্ষও বাতিলের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন। এরপর মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে দুই ইউপি চেয়ারম্যান হাইকোর্টে রিট করেন। তাদের দুজনের ক্ষেত্রেই এ আদেশ কার্যকর হবে। ‍সুতরাং অন্যান্য উপজেলায় কেউ পদে থেকে নির্বাচন করতে চাইলে তাদের আদালতের আদেশ নিতে হবে।

এমএ/

গৃহস্থালি কাজে নারীদের অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের সুপারিশ সংসদীয় স্থায়ী কমিটির

প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ এএম
গৃহস্থালি কাজে নারীদের অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের সুপারিশ সংসদীয় স্থায়ী কমিটির
ছবি : সংগৃহীত

গৃহস্থালি কাজের ক্ষেত্রে নারীদের জন্য অর্থনৈতিক মূল্য নির্ধারণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। 

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দ্বাদশ জাতীয় সংসদের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির দ্বিতীয় বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়।  

এছাড়াও সভায় ইউনিয়ন পর্যায়ে কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন প্রকল্পের আওতায় ক্যারাতে প্রশিক্ষণ কার্যক্রমটি বেগবান করা, শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ডিপিপি আরও বাস্তবসম্মত করা এবং পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং যৌন হয়রানি বন্ধের আইন সম্বলিত প্রচারণা বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়।  

আলোচনায় কমিটির পক্ষ থেকে ৭১ টিভিতে প্রচারিত ‘কিশোর-কিশোরী’ ক্লাব সম্পর্কিত নেতিবাচক রিপোর্টটি তদন্তে ভুল প্রমাণিত হওয়ায় চ্যানেলটির সিইওকে চিঠি দিতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। এছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদের ৪১তম বৈঠকের গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহসহ গত বৈঠকের কার্যবিবরণী নিশ্চিতকরণ ও বাস্তবায়ন অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা করা হয়। 

সভাপতি সাগুফতা ইয়াসমিন এর সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত এই সভায় কমিটির সদস্য ও মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী সিমিন হোসেন (রিমি), মো. আব্দুল আজিজ, শাহিদা তারেখ দীপ্তি, পারুল আক্তার, তাহমিনা বেগম, মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান, রেজিয়া ইসলাম এবং সাবেরা বেগম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

এলিস/এমএ/

স্বর্ণের দাম কমে ভরি ১ লাখ ১৬ হাজার

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩০ পিএম
স্বর্ণের দাম কমে ভরি ১ লাখ ১৬ হাজার
ছবি : সংগৃহীত

দুই চার দিন পর পর দেশের বাজারে স্বর্ণের দামের উত্থান-পতন লেগেই আছে। দুই দিনের ব্যবধানে মঙ্গলবার ২২ ক্যারেট স্বর্ণের দাম ভরিতে ৩ হাজার ১৩৮ টাকা কমানো হয়েছে। তারপরও ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণ কিনতে লাগবে ১ লাখ ১৬ হাজার ২৯০ টাকা।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সোনার দাম কমানোর বিষয়টি জানিয়েছে।  

বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন প্রাইসিং অ্যান্ড প্রাইস মনিটরিং কমিটি বৈঠক করে দাম কমানোর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তাতে বলা হয়, স্থানীয় বাজারে খাঁটি স্বর্ণের মূল্য কমেছে। তাই স্বর্ণের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। নতুন দাম গতকাল বেলা ৪টা থেকেই কার্যকর হবে। ২১ ক্যারেটে ৩ হাজার ৯ টাকা, ১৮ ক্যারেটে ২ হাজার ৫৬৬ টাকা এবং সনাতনী স্বর্ণে কমানো হয়েছে ২ হাজার ৭৬ টাকা। এভাবে স্বর্ণের দাম কমলেও রুপার দাম অপরিবর্তিত থাকবে।  

১৮ এপ্রিল দাম বাড়ানোর পর গত ২১ এপ্রিল ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের দাম কমিয়ে ১ লাখ ১৯ হাজার ৪২৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এই দাম নির্ধারণের দুদিনের মাথায় মঙ্গলবার আবার স্বর্ণের দাম কমানো হয়েছে। নতুন দাম অনুযায়ী, হলমার্ক করা ২২ ক্যারেট স্বর্ণের ভরির দাম ধরা হয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার ২৯০ টাকা। একইভাবে ২১ ক্যারেট সোনার ভরি ১ লাখ ১০ হাজার ৯৯৫ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৯৫ হাজার ১৪৩ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের দাম ধরা হয়েছে ৭৬ হাজার ৫৮৬ টাকা। তবে রুপার দাম আগের মতোই ২ হাজার ১০০ টাকা ভরি রাখা হয়েছে।

এমএ/

সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার পূর্বাভাস ও সার্বিক সহযোগিতায় স্বচ্ছতার তাগিদ

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২০ পিএম
প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার পূর্বাভাস ও সার্বিক সহযোগিতায় স্বচ্ছতার তাগিদ
ছবি : সংগৃহীত

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার পূর্বাভাস এবং সার্বিক সহযোগিতায় স্বচ্ছতা আনয়নের লক্ষ্যে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর এবং আবহাওয়া অধিদপ্তরকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে অন্তুর্ভুক্ত করতে জরুরি ভিত্তিতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে স্থায়ী কমিটি। একই সঙ্গে দেশব্যাপী চলমান প্রচণ্ড তাপদাহ নিয়ন্ত্রণে রাস্তায় পানি ছিটানো এবং উপজেলা পর্যায়ে জনগণের মধ্যে স্যালাইন ও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।  

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দ্বাদশ জাতীয় সংসদের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির দ্বিতীয় বৈঠকে এসব সুপরিশ করা হয়। সংসদ ভবনে আয়োজিত সভাপতি আ স ম ফিরোজের সভাপতিত্বে এই সভায় কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় ইউনি ব্লক প্রকল্পের আওতায় গ্রামীণ রাস্তা নির্মাণ, আট মাত্রার ভূমিকম্প সহনীয় অবকাঠামো নির্মাণে বিল্ডিং কোড ব্যবহার, টিআর কাবিখার মাধ্যমে গ্রামের মজা পুকুর খনন ও পরিষ্কার পরিচ্ছনতার মাধ্যমে মাছ চাষ বৃদ্ধি এবং বিশুদ্ধ পানি সরবাহের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য কমিটির পক্ষ থেকে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়। 

এছাড়াও বিগত সভার সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা, গ্রামীণ মাটির রাস্তাসমূহ টেকসইকরণের লক্ষ্যে ‘হেরিং বোন বন্ড প্রকল্প’ সম্পর্কে আলোচনা এবং অগ্নিকান্ডের ঘটনা, বন্যা ঝুঁকি, বজ্রপাত ইত্যাদি মোকাবেলার বিষয়ে করণীয় সম্পর্কে  বিশদ আলোচনা করা হয়।  
 
এলিস/এমএ/

পি কে হালদারসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৯ পিএম
পি কে হালদারসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
ছবি : সংগৃহীত

১০৩ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্সের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি কে হালদারসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুদক সূত্র জানিয়েছে, গত ১৮ এপ্রিল কমিশনের নিয়মিত বৈঠকে এ চার্জশিট অনুমোদন দেওয়া হয়। দাপ্তরিক প্রক্রিয়া শেষে চলতি সপ্তাহে এই চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে।

২০২১ সালের ৫ জানুয়ারি ৩৫১ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগ এনে পি কে হালদার, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ হাশেম, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. রাশেদুল হক, ৯ জন বোর্ড মেম্বার, পিপলস লিজিংয়ের চেয়ারম্যান উজ্জ্বল কুমার নন্দী, পি কে হালদারের আত্মীয়স্বজনসহ মোট ৩৩ জনের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা দায়ের করে দুদক। এর মধ্যে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে বেনামী প্রতিষ্ঠান ‘আনান কেমিক্যালের’ নামে ঋণ দেখিয়ে ২০২২ সালে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত সুদসহ ১০৩ কোটি ১৬ লাখ ৭০ হাজার ৭১৯ টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে ২৩ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করা হয়। সেই দুই মামলার তদন্ত শেষে চার্জশিট অনুমোদন করেছে কমিশন। বাকি মামলাগুলোর তদন্ত শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে জানা গেছে।