রমনার বটমূলে সুরের মূর্ছনায় বর্ষবরণ । খবরের কাগজ
ঢাকা ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

রমনার বটমূলে সুরের মূর্ছনায় বর্ষবরণ

প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:০৩ এএম
রমনার বটমূলে সুরের মূর্ছনায় বর্ষবরণ
রমনার বটমূলে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করছে ছায়ানট। ছবি: ইন্দ্রজিৎ কুমার ঘোষ

আজ বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। বাংলা বর্ষপঞ্জিতে শুরু হলো নতুন বছরে দিন গণনা। প্রতিবছরের মতো এবারও নতুন বছরের নতুন দিনটি উদযাপন করতে রাজধানীর রমনা বটমূলে শুরু হয়েছে বর্ষবরণ উৎসব।

রবিবার (১৪ এপ্রিল) ভোরের আলো ফোটার আগে থেকে রমনার বটমূলে রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষের আসা শুরু করে ধর্ম, বর্ণ, গোত্র, ধনী, নির্ধন নির্বিশেষে সব শ্রেণি-পেশার মানুষ। সকাল সোয়া ছয়টায় আহির ভৈরব রাগে বাঁশির সুরে শুরু হয় বর্ষবরণের এবারের অনুষ্ঠান।

নতুন বছরকে এক কণ্ঠে বরণ করে নিচ্ছেন সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ছায়ানটের শতাধিক শিল্পী। 

সেখানে জীর্ণতা ঘুচিয়ে নতুনের আহ্বানে নববর্ষকে স্বাগত জানাচ্ছেন সর্বস্তরের মানুষ। ফলে পয়লা বৈশাখের এই বিশাল আয়োজন রূপ নিয়েছে মহোৎসবে। তারা রমনা বটমূল ছায়ানটের প্রভাতী অনুষ্ঠানের গান, কবিতা আসরে যোগ দিয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, রমনার বটমূলে আহির ভৈরব রাগে বাঁশির সুরে এবার ছায়ানটের নতুন বছর আবাহন শুরু হয়। এবারের অনুষ্ঠানের মূলভাব মানুষ ও মানবতার জয়গান। 

ছায়ানটের পুরো অনুষ্ঠান সাজানো হয়েছে নতুন স্নিগ্ধ আলোয় স্নাত প্রকৃতির গান, মানবপ্রেম-দেশপ্রেম আর আত্মবোধন-জাগরণের সুরবাণী দিয়ে। এবারের আয়োজনে ১১টি সম্মেলক গান, ১৫টি একক গান, পাশাপাশি পাঠ ও আবৃত্তি রয়েছে।

অমিয়/

বাংলাদেশি অদক্ষ শ্রমিক নেওয়া বন্ধ করল মালদ্বীপ

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৯:৪৪ পিএম
বাংলাদেশি অদক্ষ শ্রমিক নেওয়া বন্ধ করল মালদ্বীপ
ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ থেকে অদক্ষ শ্রমিক নিয়োগ বন্ধ করেছে দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপ। মঙ্গলবার (২১ মে) দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ফাতিমাথ রিফাথ স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, ‘মালদ্বীপের কিছু কোম্পানি জাল কাগজপত্র দাখিল করে শ্রমিক নিয়োগ করেছে। তাই এক মাস আগে বাংলাদেশ থেকে অদক্ষ শ্রমিক নিয়োগ বন্ধ করা হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।’

অভিবাসী সমস্যার সমাধানের অংশ হিসেবে মালদ্বীপের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্প্রতি ‘কুরাঙ্গি’ নামে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে। এই অভিযানে ৭০০ জনের বেশি অভিবাসীর বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ থেকে অদক্ষ শ্রমিক নিয়োগের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল মালদ্বীপ। দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সলিহর প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। নতুন প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জুর প্রশাসন গত বছরের ডিসেম্বরে এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছিল।

গত ডিসেম্বরে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলী ইহুসান বলেছিলেন, বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য ১ লাখ ৩৯ হাজার ২২০টি ওয়ার্ক পারমিট আগে থেকেই রয়েছে। তাদের মধ্যে নিয়মিত ওয়ার্ক পারমিট ফি দিয়েছেন মাত্র ৩৯ হাজার ৪ জন। 

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত ডিসেম্বর পর্যন্ত মালদ্বীপে ৯০ হাজার ৬৪২ শ্রমিক বাংলাদেশি আগে থেকেই ছিলেন। মালদ্বীপের কর্মসংস্থান আইন অনুযায়ী, একটি দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগের কোটা ১ লাখের কম।

দমচর্চা-প্রত্যয়ন পাঠের মধ্য দিয়ে মেডিটেশন দিবস পালিত

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৯:২৭ পিএম
দমচর্চা-প্রত্যয়ন পাঠের মধ্য দিয়ে মেডিটেশন দিবস পালিত
ছবি : সংগৃহীত

‘ভালো মানুষ ভালো দেশ, স্বর্গভূমি বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মঙ্গলবার (২১ মে) বিশ্ব মেডিটেশন দিবস পালন করেছে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন। জাতীয় প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে বিশেষ মেডিটেশনের আয়োজনের মধ্য দিয়ে চতুর্থবারের মতো এই কর্মসূচি পালন করে সংগঠনটি। 

রাজধানীর পাশাপাশি আজ ভোর ৬টায় সারা দেশের বিভিন্ন উন্মুক্ত স্থানে একযোগে প্রাণায়াম বা দমচর্চা, প্রত্যয়ন পাঠ ও মেডিটেশনের আয়োজন করে সংগঠনটি। আর এর মধ্য দিয়ে ধ্যানীরা সুস্থতা ও প্রশান্তির বাণী ছড়িয়ে দেন। 

অনুষ্ঠানে বক্তারা প্রাণায়াম, প্রত্যয়ন, অনুভূতি আর ধ্যানের মাধ্যমে মেডিটেশন (ধ্যান) চর্চার গুরুত্ব তুলে ধরেন। তারা জানান, ভুল জীবনযাপন থেকে সৃষ্টি হয় বিভিন্ন রোগ। আর তার থেকে মুক্তি এবং টোটাল ফিটনেসের জন্য প্রয়োজন মেডিটেশন বা সুস্থ জীবনযাপন। প্রশান্তি নিয়ে বর্তমানে বিশ্বজুড়ে প্রায় ৫০ কোটিরও বেশি মানুষ নিয়মিত মেডিটেশন করে। নিয়মিত এই অনুশীলন, মানুষের ভেতরের ইতিবাচক সত্তাকে জাগিয়ে তোলে। আত্মশক্তির বিকাশ, রোগ নিরাময়, সাফল্য কিংবা প্রশান্তি লাভে মেডিটেশনের গুরুত্ব এখন প্রমাণিত সত্য। জাতি, ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে মানুষের কল্যাণ সাধনে মেডিটেশন সবচেয়ে কার্যকরী মাধ্যম। যা মানুষের মনকে স্থির করে, ক্রোধ কমায়।

এর আগে ভোর থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে ধ্যানপ্রেমী ছোট বড় নানা পেশার মানুষ জড়ো হতে থাকে। দিনটি উদযাপন করতে ঢাকার বাইরে থেকেও অসংখ্য মানুষ আসে। তাদের মধ্যে মুন্সীগঞ্জ থেকে আসা আকরাম নামে একজন বলেন, ‘আমাদের প্রত্যেকের মধ্যেই সুপ্ত প্রতিভা লুকিয়ে আছে। আমরা অনেকেই হয়তো সে শক্তি সম্পর্কে নিশ্চিত নই। নিজেকে জানতে কিংবা নিজের সেই লুক্কায়িত প্রতিভা জাগ্রত করার প্রধান অস্ত্র হচ্ছে মেডিটেশন।’ 

খাদিজা নামের একজন এসেছেন নারায়ণগঞ্জ থেকে। তিনি জানান, এই মেডিটেশন উদযাপনে অংশগ্রহণ করতে তিনি ভোরের আলো ফোটার আগেই বের হয়েছেন। প্রায় ২০ বছর ধরে তিনি মেডিটেশন করছেন। মেডিটেশন তার জীবন বদলে দিয়েছে।

নরসিংদী থেকে এসেছেন মোমেনা বেগম। তিনি বলেন, ‘নিজেকে সময় দেওয়া, স্থির হওয়াটা খুব জরুরি।  জীবনের সব ইতিবাচক পরিবর্তনে মেডিটেশন একটি কার্যকরী ওষুধ, যা পরিবারের সুস্থতা ও সামাজিক সুস্থতায়ও অবদান রাখে।’ 

প্রসঙ্গত, ৭ বছর আগে উইল উইলিয়ামস নামে এক ব্রিটিশ মেডিটেশন প্রশিক্ষক প্রথম দিবসটি পালনের উদ্যোগ নেন। তিনি ছিলেন অনিদ্রার রোগী। মেডিটেশনের মাধ্যমে নিরাময় লাভের পর এ সম্পর্কে আরও উৎসাহী হয়ে ওঠেন উইলিয়ামস। নিয়মিত  মেডিটেশন চর্চায় কমে যায় মনের রাগ, ক্ষোভ, দুঃখ, হতাশা কিংবা মানসিক চাপ। নেতিবাচকতা থেকে দৃষ্টিভঙ্গি বদলে যায় ইতিবাচকতায়।

গরিব-দুঃখী মানুষের আস্থার ঠিকানা শেখ হাসিনা: নানক

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৮:২৯ পিএম
গরিব-দুঃখী মানুষের আস্থার ঠিকানা শেখ হাসিনা: নানক
ছবি : সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, গরিব-দুঃখী মানুষের আস্থার ঠিকানা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মেহনতি মানুষের জীবন-জীবিকার কথা চিন্তা করেই ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচলের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

মঙ্গলবার (২১ মে) রাজধানীর তালতলায় লায়ন্স অগ্রগতি স্কুলে স্পেশাল বাচ্চা, বৃদ্ধ ও প্যারালাইস্ড রোগীদের হুইলচেয়ার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সামাজিক সংগঠন ‘সোসাইটি ফর এইড প্রোগ্রাম’ (এসএপি)। এ সময় রোগীদের মাঝে হুইলচেয়ার ও গরিব-দুঃখীদের মাঝে অটোরিকশা বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে একটি বার্তা আসে, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধ করা হয়েছে। তাই শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করেছেন। প্রধানমন্ত্রী কথাটা শুনে অবাক হয়ে গেলেন! তিনি জানতে চান- ‘এর কারণ কী? প্রধানমন্ত্রী তখনি পরিষ্কার করে বললেন- ‘ওরা যা দিয়ে উপার্জন করে জীবন-জীবিকা চালায় সেই পথ কেন বন্ধ করা হয়েছে?’ সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন অটোরিকশা চালু করার জন্য এবং চালু হয়ে গেল।’

ঢাকা ১৩ আসনের জনগণের উদ্দেশে স্থানীয় এমপি নানক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেমন গরিব-দুঃখী মানুষের জন্য কাজ করেন, আমরাও ঠিক তেমনিভাবে মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। যেকোনো প্রয়োজনে আমাদের জানাবেন, আমরা পাশে থাকব।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতা-কর্মীরা।

 

রোহিঙ্গা সংকট দীর্ঘায়িত হওয়ায় চরমপন্থার বীজ রয়ে গেছে: পররাষ্ট্রসচিব

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৮:১৯ পিএম
রোহিঙ্গা সংকট দীর্ঘায়িত হওয়ায় চরমপন্থার বীজ রয়ে গেছে: পররাষ্ট্রসচিব
ছবি : সংগৃহীত

রোহিঙ্গা সংকট দীর্ঘায়িত হওয়ায় চরমপন্থার বীজ রয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন। 

মঙ্গলবার (২১ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ‘বাংলাদেশে সহিংসতা, চরমপন্থা প্রতিরোধ: স্নাতক এবং স্থায়িত্ব’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন। 

দীর্ঘদিন ধরে রোহিঙ্গা ইস্যুটি অমীমাংসিত রয়েছে মন্তব্য করে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘এটাই সংকটের উৎস। তাই আমরা অবশ্যই আত্মতৃপ্তি বোধ করব না যে, সহিংস চরমপন্থা সম্পূর্ণভাবে নির্মূল করা হয়েছে। আমরা একটি শান্তিপূর্ণ, ন্যায়সংগত এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ গঠনের লক্ষ্যে সন্ত্রাসবাদের সব রূপ এবং প্রকাশের জিরো টলারেন্স পদ্ধতির সঙ্গে আপোস করতে পারি না। আমাদের অবশ্যই সহিংস, চরমপন্থার ঝুঁকি ও চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে ভবিষ্যৎ উৎসগুলোর প্রতি সংবেদনশীল থাকতে হবে।’ 

পররাষ্ট্রসচিব বলেন, ‘প্রায় ১০ বছর ধরে গ্লোবাল কমিউনিটি এনগেজমেন্ট অ্যান্ড রেজিলিয়েন্স ফান্ডের (জিসিআরইএফ) সঙ্গে বাংলাদেশ কাজ করছে। আমরা সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে গঠিত জিসিআরইএফের আন্তধর্মীয় প্রচার, আন্তসাংস্কৃতিক সংলাপ ও সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধবিষয়ক গ্রুপ অব ফ্রেন্ডসের সদস্য।’ 

পররাষ্ট্রসচিব আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা আমাদের সম্প্রদায়ের মধ্যে সহিংস চরমপন্থার শিকড় উপড়ে দেওয়ার জন্য যুবক, নারী, ধর্মীয় ও নেতাদের জড়িত করার জন্য কার্যকর উপায় তৈরি করতে সক্ষম হয়েছি। অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ক্রমবর্ধমান সহিংস চরমপন্থিদের প্রচারিত ক্ষতিকর বার্তাগুলোকে মোকাবিলা করার জন্য গঠনমূলক কাজ করে যেতে যথেষ্ট বিনিয়োগ ও সময় দিতে হবে।’

গোলাম মাওলা রনির গাড়িতে দুর্বৃত্তের হামলা!

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৬:১৬ পিএম
গোলাম মাওলা রনির গাড়িতে দুর্বৃত্তের হামলা!
ছবি : খবরের কাগজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এলাকায় পটুয়াখালী-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনির গাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কেউ আহত না হলেও, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গাড়িটি।

মঙ্গলবার (২১ মে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার তিন নেতার মাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গোলাম মাওলা রনি নিজে বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া এই হামলার বিষয়ে তার ব্যক্তিগত ফেসবুক ভেরিফাইড পেজ থেকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন রনি।

যেখানে রনি লিখেছেন, জল্লাদের কবলে পড়ে আজ আর একটু হলেই মরতে বসেছিলাম। প্রাণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আমার প্রাণের ওপর আঘাত আসবে অমন চিন্তা কোন দিন মাথায় ঢোকেনি।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওই পোস্টে লিখেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেট্রো রেলের স্টেশন পাড়ি দিয়ে পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগের উল্টো দিক দিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখন ইউটার্ন নেওয়ার যায়গায় ৪/৫ জন যুবক হাতুড়ি এবং আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আমার গাড়ির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ল। হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গাড়ির গ্লাস ভেঙে ফেলল। হতচকিত ড্রাইভার প্রথমে গাড়ি ব্রেক করলেন। তারপর আবার দ্রুত টান মেরে জল্লাদদের কবল থেকে বাঁচার চেষ্টা করলেন। হাতুড়ি বাহিনী পেছনে ছুটল আর অকথ্য ভাষায় গালাগাল দিতে লাগলো।

এ ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবগতও করেছেন গোলাম মাওলা রনি। প্রতিকারের আশ্বাসও পেয়েছেন; এছাড়া থানায় লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

এদিকে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাজিরুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমরা জানতে পেরেছি। উনি লিখিত অভিযোগ করেননি তবে, তিনি আমাদের ফোনে বিস্তারিত জানিয়েছেন। কে বা কারা এই হামলায় জড়িত আমরা বিস্তারিত তদন্ত করছি। 

আরিফ জাওয়াদ/এমএ/