ঢাকা ২ বৈশাখ ১৪৩১, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
Khaborer Kagoj

হাতির আতঙ্কে মশাল নিয়ে রাত-পাহারায় গ্রামবাসী!

প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:০০ এএম
হাতির আতঙ্কে মশাল নিয়ে রাত-পাহারায় গ্রামবাসী!
ছবি : খবরের কাগজ

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় হাতির তাণ্ডবের দুদিন পর আবারও ভারতীয় বন্যহাতির আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে সীমান্তঘেঁষা কয়েকটি গ্রামে। এদিকে হাতি তাড়াতে রাতে মশাল প্রজ্বালন করে অবস্থান নিয়েছে স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাতে জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া ও ভারতের হাফতিয়াগছ ফরেস্টের জিরো সীমানায় অবস্থান নিয়ে থাকতে দেখা যায়। 

জানমালের নিরাপত্তায় গ্রামপুলিশ ও সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি সদস্যদের পাশাপাশি ভারতের অভ্যন্তরে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী ও ভারতীয় বন বিভাগকে অবস্থান নিতে দেখা গেছে।

এর আগে সকাল থেকে উপজেলা সদরের তেলিপাড়া, সিদ্দিকনগর খুনিয়াভিটাসহ গ্রামগুলোতে ভারতীয় বন্যহাতির আসার খবরে আতঙ্ক বিরাজ করছে। একই সঙ্গে সাধারণ মানুষকে সচেতন ও হাতিকে বিরক্ত করা থেকে বিরত থাকতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে তেলিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘দুই দিন আগে দুটি হাতি বাংলাবান্ধায় ঢুকে এক যুবককে মেরে ফেলেছে। এবার আমাদের বাড়ির পেছনে ভারতের অভ্যন্তরের একটি জঙ্গলে হাতি দুটি অবস্থান করছে।’

সিদ্দিকনগর এলাকার বাসিন্দা  আহসানুল হক বলেন, ‘হাতি দুটি ভারতের ফরেস্টের জঙ্গল অবস্থান করছে। এদিকে জঙ্গল থেকে বের হলে আমাদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি করতে পারে। তাই আমরা আগুন নিয়ে অবস্থান করছি। হাতি দুটি আমাদের গ্রামের দিকে এলে আগুন দেখে পালিয়ে যাবে। এই রাত পাহারায় রয়েছি গ্রামের সব মানুষ।’

পঞ্চগড় বন বিভাগ ও ভারতীয় বন দপ্তর সূত্রে জানা যায়, বন্যহাতি দুটি পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার সীমান্ত হতে মাত্র ২০০ গজ দূরে ভারতের বিএসএফ ক্যাম্প সংলগ্ন বনে অবস্থান করছে। তাই হাতি দুটি যেন পুনরায় বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে, সে জন্য ভারতীয় বন দপ্তরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের কর্মকর্তারা।   

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে তেঁতুলিয়া সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া ও ভারতের হাফতিয়াগছ ফরেস্ট অফিসের জিরো সীমানায় উপস্থিত হয়ে ভারতীয় বন দপ্তরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে হাতি দুটিকে ট্রাংকুলাইজার ব্যবহার করে দ্রুত উদ্ধারের ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান বন বিভাগের কর্মকর্তারা।

তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, ‘দুদিন পর আবারও বাংলাদেশে প্রবেশের আশঙ্কা থাকায় আমরা ভারতের বন দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে আলোচনা করেছি। হাতি দুটি যেন বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে, তার জন্য তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে। বন্যহাতিকে দেখে কেউ যেন বিরক্ত না করে এবং মানুষকে নিরাপদে থাকতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক প্রচার করা হচ্ছে। আশা করছি, ভারতীয় বন বিভাগ তাদের কৌশল অবলম্বন করে হাতি দুটিকে উদ্ধার করে দ্রুত নিয়ে যাবে।’

রনি মিয়াজী/জোবাইদা/অমিয়/

বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ পিএম
বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু
ছবি: খবরের কাগজ

ঈদুল ফিতর ও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে গত ১০ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে ভারতের সঙ্গে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ ছিল। টানা পাঁচ দিনের ছুটি শেষে সোমবার সকাল থেকে পুনরায় এ বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকালে বেনাপোল বন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব মহসিন মিলন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, ‘ঈদ ও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে পাঁচ দিন বন্ধ ছিল বন্দরের কার্যক্রম। ছুটি শেষে আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি।’

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিশ্বাস জানান, ঈদুল ফিতর ও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে পাঁচ দিন বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার অন্যান্য দিনের মতোই স্বাভাবিক ছিল।

বেনাপোল বন্দরের পরিচালক (ট্রাফিক) রেজাউল করিম জানান, টানা পাঁচ দিনের ছুটির পর আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য শুরু হওয়ায় বেনাপোল বন্দর এলাকায় কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। পণ্যজট কমাতে প্রয়োজনে অতিরিক্ত সময় কাজ চলবে বন্দরের অভ্যন্তরে। যেসব পণ্য বন্দরে প্রবেশ করেছে এবং নতুন করে যেসব পণ্য প্রবেশ করবে তা দ্রুত খালাস করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

নজরুল ইসলাম/সাদিয়া নাহার/অমিয়/

গজারিয়ায় অজ্ঞাত তরুণীর মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ পিএম
গজারিয়ায় অজ্ঞাত তরুণীর মরদেহ উদ্ধার
গজারিয়ায় অজ্ঞাত তরুণীর মরদেহ দেখতে মানুষের ভিড়। ছবি: খবরের কাগজ

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় অজ্ঞাত তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মরদেহের পাশ থেকে একটি রক্তমাখা কাঁচি জব্দ করা হয়।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল পৌনে ছয়টার দিকে টেংগারচর ইউনিয়নের বৈদ্দারগাঁও দক্ষিণপাড়া নতুন কবরস্থান সংলগ্ন খেত থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত তরুণীর পরিচয় না জানা গেলেও তার বয়স ২৫ হতে পারে বলে জানায় পুলিশ।

রবিবার রাতের কোনো এক সময় তাকে খুন করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাবুল শিকদারের জমির পাশে এক তরুণীর মৃতদেহ দেখতে পান তারা। বিষয়টি তারা সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

গজারিয়া থানার পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) এটিএম আক্তারুজ্জামান খবরের কাগজকে জানান, প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে নিহতের গলায় ধারালো কিছুর আঘাত পাওয়া গেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। নিহতের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

মঈনউদ্দিন/অমিয়/

গোপালগঞ্জে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৬ এএম
গোপালগঞ্জে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
ছবি : খবরের কাগজ

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থেকে সাহিদ শেখ (৩৩) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) ভোর রাতে মুকসুদপুর উপজেলার মোচনা ইউনিয়নের আইকদিয়া গ্রামের মিঠাপুকুর নামক স্থান থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি ওই গ্রামের মৃত খবির শেখের ছেলে।

মুকসুদপুর থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

তিনি জানান, একটি নারিকেল গাছের তলায় সাহিদ শেখকে পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মৃতদেহের বুকে, পিঠে ও মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে হত্যার পর ওই স্থানে ফেলে রেখে যেতে পারে দুর্বৃত্তরা। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা না হলেও বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। 

বাদল সাহা/জোবাইদা/অমিয়/

ঈদের ছুটি শেষে সচল বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৫ এএম
ঈদের ছুটি শেষে সচল বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর
ছবি : খবরের কাগজ

ঈদুল ফিতর ও বাংলা নববর্ষের ছুটি শেষে সচল হয়েছে পঞ্চগড়ের চার দেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম। 

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সকাল থেকে বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভূটানের সঙ্গে পাথরসহ সকল প্রকার পণ্য আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম সচল হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি আব্দুল লতিফ তারিন। 

পবিত্র ঈদুল ফিতর, শবে কদর ও বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভুটানের ব্যবসায়ীদের যৌথ সিদ্ধান্তে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে গত ৮ এপ্রিল থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত আমদানি-রপ্তানি সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। ছুটি শেষে সোমবার সকাল থেকে পুনরায় স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম চালু হয়েছে।

তবে স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক ছিল বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের যাতায়াত।

এ বিষয়ে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের ব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঈদুল ফিতর ও বাংলা নববর্ষের ছুটি শেষে আজ সকাল থেকে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম সচল হয়েছে।

রনি মিয়াজী/জোবাইদা/অমিয়/

ডাকাতিয়ার পাড়ে মাসব্যাপী বৈশাখী মেলা

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪৭ এএম
ডাকাতিয়ার পাড়ে মাসব্যাপী বৈশাখী মেলা
ছবি : খবরের কাগজ

চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ষবরণ ও প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে মাসব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

রবিবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ৯টায় হাসান আলী উচ্চবিদ্যালয় মাঠ থেকে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে এবং চাঁদপুরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর অংশগ্রহণে বর্ণিল আনন্দ শোভাযাত্রা ডাকাতিয়ার পাড়ে বৈশাখী মেলায় এসে শেষ হয়। পরে সেখানে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান ও বৈশাখী মেলার উদ্বোধন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান।

বৈশাখী মেলাকে ঘিরে ডাকাতিয়ার পাড়ে বসে হরেক রকম পণ্যের দোকান। এসব দোকানে মাটির তৈরি খেলনাসহ লোকজ সংস্কৃতির হরেক রকম পণ্য দেখা গেছে। 

সকাল থেকেই বৈশাখী মেলায় যেন মানুষের ঢল নামে। গ্রামাঞ্চল থেকে ট্রেনে, বাসে করেও আনন্দপ্রিয় মানুষদের ছুটে আসতে দেখা যায় সর্বজনীন এ উৎসবে। 

চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন শান্ত বলেন, ‘এই প্রথম চাঁদপুরে প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে মাসব্যাপী বাঙালির সাংস্কৃতিক উৎসব বৈশাখী মেলা আয়োজন করা হয়েছে। এর উদ্দেশ্য বাঙালিকে জাতীয়তাবাদে উদ্বুদ্ধ করা। শুধু পহেলা বৈশাখে এটি সীমাবদ্ধ না থাকে, বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্য যাতে সারা বছর মানুষ ধারণ করে, তার চেষ্টা করতে হবে। আমরা যত জাতীয়তাবাদে উদ্বুদ্ধ হব, তত আমরা বিভিন্ন অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়তে পারব।’

জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান বলেন, ‘আমাদের আয়োজনটি বাঙালির সংস্কৃতির আয়োজন। নতুন প্রজন্মদের আমাদের সমৃদ্ধ সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্যই কিন্তু আমাদের এই আয়োজন। সংস্কৃতির অংশ হিসেবে আমরা বিভিন্ন দেশীয় খেলাধুলার আয়োজন করে পুরস্কৃত করেছি। নতুন প্রজন্ম এখন বেশিই আধুনিক। তারা যেকোনো পরিস্থিতিতে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে। কারণ র্যালিতে নতুন প্রজন্মদের ব্যাপক উপস্থিতি ছিল।’

শরীফুল ইসলাম/জোবাইদা/অমিয়/