ঢাকা ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪
Khaborer Kagoj

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ম্যাচ হেরে হতাশ সাউদি কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশকে

প্রকাশ: ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:৫৯ এএম
ম্যাচ হেরে হতাশ সাউদি কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশকে
ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে সিলেটে ১৫০ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে সফরকারি নিউজিল্যান্ড। ম্যাচ হারলেও বাংলাদেশকে কৃতিত্ব দিতে ভুলে যাননি নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টিম সাউদি। প্রশংসা করেছেন স্বাগতিকদের।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তৃতীয় চক্রের অংশ সিলেট টেস্টে ১৫০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারার পরই মূলত বাংলাদেশকে কৃতিত্ব দেন সাউদি।

ম্যাচশেষে পুরস্কার বিতরণীতে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টিম সাউদি বলেন, ‘হতাশ তবে বাংলাদেশকে কৃতিত্ব দিতে হবে। তারা ভালো খেলেছে। আমাদের বোলারদের দীর্ঘসময়ের জন্য চাপ তৈরি করতে হবে। ব্যাটারদের জুটি গড়তে আরোবেশি, ভালো করতে হবে দীর্ঘসময়ের জন্য। উইকেট ভালো ছিল। স্পিন ধরছিল যা খুবই প্রত্যাশিত ছিল বিশ্বের এই প্রান্তে।’

ঢাকায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টের আগে এই ম্যাচে পরজায়ের ভুলগুলো শুধরে নিয়ে মাঠে নামতে চান সাউদি। যাতে করে দ্বিতীয় টেস্টে ফলাফল নিজেদের অনুকূলে আনা যায়, ‘আমাদের হাতে কিছুদিন সময় আছে ঢাকা টেস্টের কিছু ব্যাপারে কাজ করার জন্য। সে পিচটা ব্যতিক্রম হবে। প্রত্যেকেই ভালো করার চেষ্টা করছে আর এটাই আমরা চাই সবার কাছে। সবাই ভূমিকা রাখতে প্রতিটি পরিস্থিতিতে। এটা ভালো যে উইলিয়ামসন ও সৌধি সেটা করেছে।'

সিলেট টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত’র শতকের পাশাপাশি মুশফিক ও মিরাজের অর্ধশতকে লড়াকু পুঁজি পায় বাংলাদেশ। দুই ইনিংসেই বল হাতে তাইজুল ছিলেন দুর্দান্ত। দুই ইনিংসে ১০ উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা।

দল হারলেও প্রথম ইনিংসে ৩৫ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৪ রান করে লোয়ার অর্ডারে ভালো ব্যাটিং করে দলকে সহায়তা করেন টিম সাউদি। দুই ইনিংসেই ১টি করে নিয়েছেন ২টি উইকেট।

ফিলিপসের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং, তবুও নিউজিল্যান্ডে চাই ৩৬৯

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ০৪:০২ পিএম
ফিলিপসের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং, তবুও নিউজিল্যান্ডে চাই ৩৬৯
ছবি : সংগৃহীত

তৃতীয় দিনে বেসিন রিজার্ভের পিচে দলের প্রয়োজনে টানা ১৬ ওভার বল করেন গ্লেন ফিলিপস। অবিশ্বাস্য হলেও সত্য এই পার্ট টাইমারের বোলিং তোপেই ধস নামে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং শিবিরে। তার ক্যারিয়ারসেরা পাঁচ শিকারেই ১৬৪ রানে থেমেছে অজিদের দ্বিতীয় ইনিংস। গত দেড় যুগে ঘরের মাঠে কোনো কিউই স্পিনারের সেরা বোলিংও ফিলিপসের দখলে এখন।

দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া দ্রুত অলআউট হলেও স্বাগতিকদের দিয়েছে তারা ৩৬৯ রানের বড় লক্ষ্য। এই লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে টিম সাউদির দল ১১১ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে শেষ করেছে দিনের খেলা। জিততে দরকার আরও ২৫৮ রান।

জিততে হলে কিউইদের গড়তে হবে রেকর্ড। ঘরের মাঠে তাড়া করতে হবে সর্বোচ্চ রান তারার রেকর্ড। নিউজিল্যান্ডে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে টেস্ট জয়ের রেকর্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ৩৪৫ রানের লক্ষ্য টপকে গিয়েছিল তারা ১৯৬৯ সালে। আর নিজেদের মাঠে ১৯৯৪ সালে নিউজিল্যান্ড সর্বোচ্চ ৩২৪ রান তাড়া করে টেস্ট জিতেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চে।

দ্বিতীয় দিন থেকে বেসিন রিজার্ভের সবুজ উইকেট আচরণ বদলে স্পিন সহায়ক হওয়ার পরই ফিলিপসকে আক্রমণে আনেন সাউদি। প্রথম শিকার করেন তিনি উসমান খাজাকে দিয়ে। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে উইকেট থেকে বেরিয়ে এসে বড় শট খেলতে গিয়ে স্টাম্পিং হয়ে মাঠ ছাড়েন খাজা। এরপর নিজের শিকার বানান প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করা ক্যামেরুন গ্রিন, ট্রাভিস হেড, মিচেল মার্শ ও অ্যালেক্স ক্যারিকে।

ফিলিপসের বোলিংয়ে অস্ট্রেলিয়াকে অলআউট করার পর ৩৬৯ রান তাড়া করতে ৫৯ রানের মধ্যেই সম্যান টম লাথাম, উইল ইয়াং ও কেইন উইলিয়ামসনকে হারায় স্বাগতিকরা। নিউজিল্যান্ডের ৩ উইকেটই নিয়েছেন স্পিনাররা।  লায়ন দুটি আর হেড শিকার করেন একটি।

রাচিন রবীন্দ্র ও ড্যারিল মিচেল চতুর্থ উইকেটে অবিচ্ছিন্ন জুটিতে দুজন মিলে ৫২ রান যোগ করে দিন শেষ করেছেন। 

জানা গেল বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজের টিকিটের দাম

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ০২:০৯ পিএম
জানা গেল বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজের টিকিটের দাম
ছবি : সংগৃহীত

গেল রাতেই শেষ হলো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার (বিপিএল) লিগের দশম আসর। সর্বাধিক চারবার চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লাকে হারিয়ে সেখানে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে হয়েছে ফরচুন বরিশাল। বিপিএলের এই ডামাডোলের মাঝেই একদিন আগেই গেল ২৯ ফেব্রুয়ারি পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। সেই সিরিজ শুরু হবে টি-টোয়েন্টি দিয়ে। আগামী ৪ তারিখ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। সেই সিরিজের টিকেটের মূল্য ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সর্বনিম্ন ২০০ এবং সর্বোচ্চ দেড় হাজার টাকায় দেখা যাবে এই সিরিজের ম্যাচ। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিকেটের মূল্য জানিয়েছে বিসিবি।

ওয়েস্টার্ন গ্যালারি ও গ্রিন হিল এরিয়া স্ট্যান্ডের টিকিটের দাম ধরা হয়েছে সর্বনিম্ন ২০০ তাকা। ইস্টার্ন গ্যালারি ৩০০ এবং ক্লাব হাউজের টিকিটের দাম ৫০০ টাকা। এছাড়া সর্বোচ্চ দেড় হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডের টিকিট।

টিকিট পাওয়া যাবে সিরিজ শুরুর আগেরদিন (৩ মার্চ) থেকে। যা সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, লাক্কাতুরা টিকিট কাউন্টারের মূলগেট ও রিকাবিবাজারে অবস্থিত সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের টিকিট কাউন্টার থেকে কেনা যাবে। টিকিট ছাড়ার সময় নির্ধারিত হয়েছে ম্যাচের দিন ও তার আগেরদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত।

আজ থেকে অনলাইনেও পাওয়া যাবে সিলেট ভেন্যুর টিকিট। যা পরবর্তীতে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের টিকিট কাউন্টার থেকে সংগ্রহ করতে হবে। ওই টিকিট সংগ্রহ করতে হবে ম্যাচের আগেরদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে।

উল্লেখ্য, আগামী ৪, ৬ ও ৯ মার্চ যথাক্রমে সংক্ষিপ্ত সংস্করণের তিনটি ম্যাচ হবে সিলেটে। এরপর চট্টগ্রামে তিনটি ওয়ানডে খেলা শেষে আবারও সিলেটে হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট এবং শেষ টেস্ট খেলতে আরেকবার চট্টগ্রাম উড়াল দেবে দুই দল।

অভিজ্ঞতা এবং তারুণ্যের সংমিশ্রণে দল তৈরি করল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:৫০ পিএম
অভিজ্ঞতা এবং তারুণ্যের সংমিশ্রণে দল তৈরি করল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল
ছবি : সংগৃহীত

খুব বেশি দেরি নেই কোপা আমেরিকার। চলমান মাসেই প্রীতি ম্যাচ দিয়ে নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করবে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। প্রস্তুতি ম্যাচে আর্জেন্টিনার দুই প্রতিপক্ষ হলো এল সালভাদর ও কোস্টারিকা। এ দুই ম্যাচের জন্য ২৬ সদস্যদের দল ঘোষণা করেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

অভিজ্ঞ লিওনেল মেসি-আনহেল দি মারিয়াদের মতো তারকার পাশাপাশি দলে জায়গা পেয়েছেন উদীয়মান তরুণ খেলোয়াড়রারও। দলে সুযোগ পেয়েছেন তরুণ খেলোয়াড়দের মধ্যে চারজন। তারা হলেন ভ্যালেন্টিন বারকো, ফাকুন্দো বুয়োনানোত্তে, ভ্যালেন্টিন কার্বনি এবং আলেহান্দ্রো গারনাচো।

প্রথমবারের মতো আর্জেন্টিনা দলে ডাক পেয়েছেন বারকো। চোটের কারণে দলে নেই ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ জেতা দলের সদস্য লিসান্দ্রো মার্টিনেজ, গনসালো মন্টিয়েল, মার্কোস আকুনা এবং গুইদো রদ্রিগেজ। দলে সুযোফ না পাওয়া থিয়াগো আলমাদাকে রাখা হয়েছে হাভিয়ের মাচেরানোর অলিম্পিক সফরের অনূর্ধ্ব ২৩ দলে।

আগামী ২২ মার্চ ফিলাডেলফিয়াতে এল সালভাদর এবং ২৬ মার্চ লস অ্যাঞ্জেলেসে কোস্টা রিকার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা।

দরিভাল জুনিয়র ব্রাজিলের কোচ হওয়ার পর এই প্রথম ঘোষণা করলেন জাতীয় দলের স্কোয়াড।

২৩ মার্চ ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এবং ২৬ মার্চ রাতে স্পেনের বিপক্ষে খেলবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের পাশাপাশি ২৬ সদস্যের এই দলে বেশ কজন তরুণ খেলোয়াড়কেও ডেকেছেন ব্রাজিলের এই নতুন কোচ। দলে জায়গা ধরে রেখেছেন রিয়াল মাদ্রিদে ক্যারিয়ার শুরু করার অপেক্ষায় থাকা ১৭ বছর বয়সী এনদ্রিক। প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন পিএসজির লুকাস বেরালদো। এ ছাড়া চোটে আক্রান্ত হওয়ার পরও দলে রাখা হয়েছে টটেনহাম স্ট্রাইকার রিচার্লিসনকে।

আর্জেন্টিনা দল

গোলরক্ষক: ফ্রাঙ্কো আরমানি, ওয়াল্টার বেনটেজ, এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। ডিফেন্ডার: গেরমান পেজেল্লা, নেহুয়ান পেরেজ, নিকোলাস ওতামেন্দি, ক্রিস্টিয়ান রোমেরো, নিকলোসা তালিয়াফিকো, মার্কোস সেনসি, নাহুয়েল মলিনা, ভ্যালেন্টিন বারকো। মিডফিল্ডার: এজকুয়েল পালাসিওস, রদ্রিগো ডি পল, লেয়ান্দ্রো পারাদেস, অ্যালেক্সিস ম্যাক আলিস্টার, এনজো ফার্নান্দেজ, গিওভানি লো সেলসো। ফরোয়ার্ড: নিকোলাস গঞ্জালেস, আলেহান্দ্রো গারনাচো, ফাকুন্দো বুয়োনানোত্তে, ভ্যালেন্টিন কার্বনি, আনহেল দি মারিয়া, লিওনেল মেসি, হুলিয়ান আলভারেজ, লাওতারো মার্টিনেজ এবং পাউলোদ দিবালা।

ব্রাজিল দল
গোলরক্ষক: এদেরসন, রাফায়েল, বেন্তো। ডিফেন্ডার: দানিলো, ইয়ান কৌতো, ওয়েন্ডেল, আইরটন লুকাস, গ্যাব্রিয়েল মাগালায়েস, মার্কুইনোস, বেরালদো, মুরিলো। মিডফিল্ডার: আন্দ্রে, ব্রুনো গিমারেস, কাসেমিরো, জোয়াও গোমেজ, লুকাস পাকেতা, ডগলাস লুইস, পাবলো মাইয়া, আন্দ্রেয়াস। ফরোয়ার্ড: গ্যাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি, এনদ্রিক, রদ্রিগো, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রিচার্লিসন, রাফিনিয়া, সাভিনিও।

শ্রীলঙ্কা সিরিজ খেলা হচ্ছে না আলিসের

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:০৫ পিএম
শ্রীলঙ্কা সিরিজ খেলা হচ্ছে না আলিসের
ছবি : সংগৃহীত

২০১৯ বিপিএলের আসরে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলতে নেমে অভিষেকেই করেন হ্যাটট্রিক রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে। এরপর থেকে কুমিল্লার হয়ে বিপিএলে মাঠে নামেন কয়েক আসর। আলিস ইসলামের বোলিং বৈচিত্র্য মুগ্ধ করেছে সবাইকে। এতেই ঘরের মাঠে এবারের শ্রীলঙ্কা সিরিজে ডাক পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এরপরেও খেলা হচ্ছে না আলিসের চোটে পড়ে।

দলে যোগ দেওয়ার আগেই চোটে পড়ে ঘরের মাঠের এই সিরিজ থেকে ছিটকে গেলেন তিনি।

সদ্য সমাপ্ত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) একটি ম্যাচে ফিল্ডিং করার সময় চোট পেয়েছিলেন আলিস। গেল ১৯ ফেব্রুয়ারি সিলেট স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্সের হয়ে খেলার ফিল্ডিং করতে গিয়ে আঙুলে চোট পান তিনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে তার খেলা হচ্ছে না আঙুলের সেই চোটেই।  অন্তত দুই সপ্তাহ সময় লাগবে এই চোট থেকে সেরে উঠতে। বিসিবি এক সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর নিশ্চিত করেছে ক্রিকেটভিত্তিক ভারতীয় ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ।

বিসিবির সূত্র জানিয়েছে, ‘আলিসের ফিট হতে আরও অন্তত দুই সপ্তাহ সময় লাগবে। তাই দলের সঙ্গে সিলেটে যাচ্ছে না সে।'

তাছাড়া কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের প্রধান কোচ মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন ক্রিকবাজকে বলেন, ‘তার আঙুলে চোট আছে। খুব সম্ভবত শ্রীলঙ্কা সিরিজে তার খেলা হচ্ছে না।’

সদ্য সমাপ্ত বিপিএলে চোটে পড়ার আগে কুমিল্লার হয়ে ৮ ম্যাচে শিকার করেছিলেন ৯ উইকেট।

সাকিবের প্রশংসায় তামিম

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ১১:১৪ এএম
সাকিবের প্রশংসায় তামিম
ছবি : সংগৃহীত

সদ্য শেষ হওয়া বিপিএলে ভিন্না মাত্রা পেয়েছে সাকিব-তামিম দ্বৈরথ। রংপুর বনাম বরিশালের প্রতিটি ম্যাচ রূপ নিয়েছিলন অঘোষিত ফাইনালে। দু দলের তিনবারের দেখায় দুবারই জয় পেয়েছে তামিমের নেতৃত্বাধীন ফরচুন বরিশাল। সবশেষে এলিমিনেটরে তামিমের কাছে গেরে বাদ পড়তে হয়েছে সাকিবের রংপুর রাইডার্সকে। মাঠে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে ৪৯২ রান করে জিতেছেন ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট ও সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহকের পুরস্কারও। একইসাথে প্রশংসা করেছেন জাতীয় দলের সব সতীর্থদেরও। এ তালিকা থেকে বাদ যায়নি সাকিব আল হাসানের নামও।

বরিশালের প্রথম শিরোপা জেতার দিনে সংবাদ সম্মেলনে এসে প্রশংসায় ভাসান জাতীয় দলের তামিম দলের সতীর্থদের। অধিনায়ক হিসেবে ট্রফি গ্রহণ করতে গিয়ে তামিম ডেকে আনেন মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। এই শিরোপা তিনি উৎসর্গ করেন তাদের। এরপর সংবাদ সম্মেলনে এসে তামিম বলেন, ‘অবশ্যই যেকোনো শিরোপা জেতা দারুণ ব্যাপার। তবে এবার একটু ভিন্ন কারণ ছিল। কারণ, আমাদের দলে এমন কয়েকজন ছিল, তরুণদের মধ্যে মিরাজ, সৌম্য বা অভিজ্ঞদের মধ্যে রিয়াদ ভাই, মুশফিক — ওরা লম্বা সময় ধরে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছে। কিন্তু ওরা এই ট্রফিটা কখনো পায়নি।’

মিরাজ ও সৌম্যদের প্রশংসা করার পাশাপাশি তামিম নাম নিয়েছেন ইনজুরি থেকে ফেরা পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনেরও। আসরের মাঝপথে দলের সাথে যোগ দিয়ে ব্যাটে-বলে দারুণ পারফর্ম করেছেন তিনি। ‘আমার মনে হয় সাইফউদ্দিনের ফেরাটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। বিশেষ করে আজ শেষ ওভারে সে অসাধারণ বোলিং করেছে। যদি ১৫ রান হয়ে যেত, তাহলে ১৭০ রানে কিন্তু সম্পূর্ণ ভিন্ন ম্যাচ হতো। আমরা তাকে নিয়ে জুয়া খেলেছি। সেটা কাজেও লেগেছে।’

সাদা পোশাকে জাতীয় দলের পরিচিত মুখ স্পিনার তাইজুল ইসলাম। ঘরের মাঠে সবশেষ নিউজিল্যান্ড সিরিজে যিনি ছিলেন টেস্ট জয়ের কারিগর। বরাবরই তিনি তামিমকে নিজের বড় ভাই হিসেবে মানেন। এমনটা জানিয়েছিলেন কিউইদের হারিয়ে। সেই তাইজুলকেও প্রশংসায় ভাসালেন অধিনায়ক তামিম, ‘তাইজুলকে নিয়ে একটা কথা বলা উচিত নয়। আমরা যদি ড্রাফট থেকে তাইজুলকে দলে নিই, তখন একটা ফ্র্যাঞ্চাইজি হাসছিল। সে খুব ভালো করেছে। মিরাজ, সে অসাধারণ। সে হয়তো বেশি বোলিং করেনি। কিন্তু যখন করেছে, তখন খুব ভালো করেছে।’

এছাড়াও শিরোপা জেতার পেছনে বরিশালের বিদেশি খেলোয়াড়ডের অবদানের কথাও স্মরণ করেছেন তামিম সংবাদ সম্মেলনে। ‘বিদেশিদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইল মায়ার্সের পারফরম্যান্সের কথা না বললেই নয়। টুর্নামেন্টের মাঝপথে বরিশালে যোগ দিয়ে খেলেছেন ৬ ম্যাচ, এর মধ্যে ফাইনালসহ ম্যাচসেরা হয়েছেন ৩ ম্যাচে। বুঝতেই পারছেন, বরিশালের শিরোপা জয়ে তাঁর ভূমিকা কতটা ছিল। তামিমই বললেন, ‘প্রত্যেকটা ম্যাচে তাঁর ইমপ্যাক্ট ছিল ব্যাট আর বলে।’

তামিমকে প্রশ্ন করা হয় পুরো টুর্নামেন্টে উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স প্রসঙ্গে। তখন আলাদাভাবে তিনি কুমিল্লার তাওহিদ হৃদয় ও ঢাকার শরিফুল ইসলামের নাম নেন। প্রশংসা করেছেন সাকিব আল হাসানেরও, ‘শরিফুল খুবই ভালো বোলিং করেছে। হৃদয় তো দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করেছেন। সে যখন রান করেছে, তখন দারুণ প্রভাববিস্তারী ছিল। সাকিব ভালো করেছে। ভালো শুরু হয়নি। তবে শেষের দিকে ভালো করেছে। তবে দুজনের নাম বললে হৃদয় আর শরিফুল।’