ঢাকা ৬ বৈশাখ ১৪৩১, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪
Khaborer Kagoj

সমতা ফেরাতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ০২ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১০ পিএম
সমতা ফেরাতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ
ছবি : সংগৃহীত

ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইওয়াশ হওয়ার পর টি-টোয়েন্টি সিরিজে মাঠে নেমে প্রথম ম্যাচে ১০ উইকেটের ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। আজ সিরিজ বাঁচাতে দ্বিতীয় ম্যাচে অজিদের মুখোমুখি হচ্ছে জ্যোতিরা।

জয়ের বিকল্প নেই এমন ম্যাচে টস হেরেছে স্বাগতিকরা। অস্ট্রেলিয়া নারী দলের অধিনায়ক অ্যালিসা হিলি টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় শুরুতে বোলিং করবে বাংলাদেশ।

দুপুর ১২টায় খেলাটি শুরু হবে। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ব্যাট হাতে দারুণ করলেও ১০ উইকেটে হেরে সিরিজে পিছিয়ে আছে ১-০ ব্যবধানে। 

 

বর্ষসেরার লড়াইয়ে শান্ত-ইমরানুর-রাকিব

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪৭ পিএম
বর্ষসেরার লড়াইয়ে শান্ত-ইমরানুর-রাকিব

বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ মানেই ক্রিকেটার। কখনো সাকিব আল হাসান, কখনো তামিম ইকবাল, কখনো মুশফিকুর রহিম কিংবা অন্য কেউ। সেখানে এবার এসেছে ব্যতিক্রম। ক্রীড়া সাংবাদিকদের সবচেয়ে বৃহৎ ও পুরোনো সংগঠন বাংলাদেশ ক্রীড়া লেখক সমিতির ২০২৩ সালের বর্ষসেরা মনোনীত তিন ক্রীড়াবিদদের জায়গায় জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে জায়গা করে নিয়েছেন ফুটবলার রাকিব হোসেন ও স্প্রিন্টার ইমরানুর রহমান। এ ছাড়া পাঠকের ভোটে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ডের সংক্ষিপ্ত তালিকায় দুই ক্রিকেটার নাজমুল হোসেন শান্ত ও নারী দলের  ফারজানা হক পিংকির সঙ্গে আছে স্প্রিন্টার ইমরানুর রহমান ও ফুটবলের উদীয়মান তারকা স্ট্রাইকার শেখ মোরসালিন। এই দুই বিভাগে কারা বর্ষসেরা হচ্ছেন তা জানা যাবে ২১ এপ্রিল বেলা ৩টায় হোটেল সোনারগাঁওয়ের গ্র্যান্ড বল রুমে এক জাঁকজমকপূর্ণ ‘কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। গতকাল বাংলাদেশ অলিম্পিক  অ্যাসোসিয়েশনের ডাচ বাংলা ব্যাংক মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্রীড়া লেখক সমিতির সভাপতি  রেজওয়ান উজ জামান রাজিব মনোনয়নপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মো. সামন হোসেন, খেলোয়াড় যাচাই-বাছাই কমিটির চেয়ারম্যান পরাগ আরমান, সদস্যসচিব  মাহবুব সরকার ও স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের হেড অব মার্কেটিং ড. জেসমিন জামান।

দুই বিভাগে বর্ষসেরা  মনোনীতদের নাম ঘোষণা করা হলেও বিভিন্ন খেলায় সরাসরি সেরা ক্রীড়াবিদদের নাম ঘোষণা করা হয়। তারা হলেন নাজমুল হোসেন শান্ত (বর্ষসেরা পুরুষ ক্রিকেটার), ফারজানা হক পিংকি (বর্ষসেরা নারী ক্রিকেটার), রাকিব হোসেন (বর্ষসেরা ফুটবলার), ইমরানুর রহমান (বর্ষসেরা অ্যাথলেট), সেলিম হোসেন (সেরা বক্সার), কামরুন নাহার কলি (সেরা শুটার), রামহিম লিয়ন বম (সেরা টেবিল টেনিস খেলোয়াড়), শেখ মোরসালিন (ফুটবল, উদীয়মান ক্রীড়াবিদ), অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল (বর্ষসেরা দল), প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (সক্রিয় সংস্থা), আলফাজ আহমেদ (বর্ষসেরা কোচ), মনজুর হোসেন মালু (বিশেষ সম্মাননা), মোয়াজ্জেম হোসেন (ভারোত্তোলন, তৃণমূল সংগঠক) হাবিবুর রহমান (কাবাডি, সেরা সংগঠক)।

শিরোপা নিষ্পত্তির ম্যাচে অনিশ্চিয়তা!

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১০ এএম
শিরোপা নিষ্পত্তির ম্যাচে অনিশ্চিয়তা!
ছবি : সংগৃহীত

প্রিমিয়ার লিগ হকির শেষ দিন শুক্রবার (১৯ এপ্রিল)। দেড় মাসের মাঠের লড়াই শেষে শিরোপার নিষ্পত্তি হবে আজ লিগের শেষ ম্যাচে। যে ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনী ও মোহামেডান। কিন্তু আদৌ এই ম্যাচটি হবে কি না, সেটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। কারণ হকি ফেডারেশনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে শিরোপানির্ধারণী ম্যাচটিতে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকার হুমকি দিয়ে রেখেছে ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান।

লিগ টেবিলের শীর্ষে মোহামেডান। নিজেদের শেষ ম্যাচে আবাহনীকে হারাতে পারলেই চ্যাম্পিয়নের মুকুট ফিরে পাবে তারাই। কিন্তু নিজেদের ক্লাব টেন্টে বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে লিগজুড়েই নানা অবিচারের শিকার হওয়ার দাবি করেছে মোহামেডান। বিভিন্ন ম্যাচের কিছু ঘটনাকে উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরে ক্লাবটির কর্মকর্তা সারওয়ার হোসেন বলেন, ‘লিগজুড়েই আমরা অনেক ধরনের সূক্ষ্ম কারুচুপি, সূক্ষ্ম প্রতারণার শিকার হয়েছি। ফেডারেশনকে বিভিন্ন সময়ে এসব বিষয়ে অবহিত করলেও তারা কোনো প্রতিকার করেনি।’

মোহামেডানের এই মুহূর্তের একমাত্র দাবি কার্ডসংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞার কারণে আবাহনীর বিপক্ষে ম্যাচে নিষিদ্ধ হওয়া রাসেল মাহমুদ জিমির শাস্তি প্রত্যাহার করা।  লিগের বাইলজ অনুযায়ী একজন খেলোয়াড় তিনটি হলুদ কার্ড পেলে পরের এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হবেন। গত ১৬ এপ্রিল ঊষা ক্রীড়াচক্রের বিপক্ষে ৬-৫ গোলে জেতা ম্যাচে  লিগে তৃতীয় বারের মতো হলুদ কার্ড দেখেন মোহামেডান অধিনায়ক জিমি। ফলে আবাহনী ম্যাচে তিনি নিষেধাজ্ঞার খড়গে পড়েন। 

ঊষার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে জিমির নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি মোহামেডানকে চিঠি দিয়ে অবহিত করে ফেডারেশন। কিন্তু মোহামেডানের দাবি- বাইলজ অনুযায়ী জিমির দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের পর ফেডারেশন তাদের চিঠির মাধ্যমে সতর্ক করেনি। লিগ কমিটির বিরুদ্ধে বাইলজ পুরোপুরি অনুসরণ না করার অভিযোগ এনেছে ক্লাবটি। গত বুধবার এক চিঠিতে জিমির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিতে ফেডারেশনকে চিঠিও দেয় তারা। তবে সেদিনই  হকি  ফেডারেশন মোহামেডানের  চিঠির জবাব দেয়। চিঠিতে  তারা  লিখেছে, ‘রাসেল মাহমুদ জিমি চলতি লিগে ৪২ ও ৬৩ নম্বর ম্যাচে দুটি হলুদ কার্ড পাওয়ায় মৌখিকভাবে সতর্ক করা হয়। পরবর্তী সময় ৬৬ নম্বর ম্যাচেও সে একটি হলুদ কার্ড প্রাপ্ত হওয়ায় মোট তিনটি কার্ড প্রাপ্ত হয়। তিনটি ম্যাচের ম্যাচ রিপোর্ট শিটে আপনার ক্লাবের ম্যানেজার সব কিছু বুঝে অবগত হয়ে সাক্ষাৎ করেছেন।’ কিন্তু মোহামেডান পাল্টা আরেকটি চিঠি দিয়ে ফেডারেশনকে বলেছে, ম্যানেজার সাক্ষাৎ করেছে ম্যাচের আগে। ম্যাচের শেষে নয়। এসব নিয়েই পরিস্থিতি এখন বেশ ঘোলাটে। যেখানে সবাই অপেক্ষায় রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ দেখার, সেখানে ম্যাচটাই ভেস্তে যাওয়ার উপক্রম। মোহামেডান কর্মকর্তা সারওয়ার হোসেন সরাসরি বলে দিয়েছেন, ‘যদি আমাদের ন্যায্য দাবি না মানে, তাহলে আমরা খেলায় অংশ নেওয়ার থেকে বিরতি থাকব।’ এমনকি মোহামেডান আর হকিতে থাকবে কি না, সে নিয়ে চিন্তা করবেন বলেও জানিয়েছেন ক্লাবটির কর্তারা। দলটির ম্যানেজার আরিফুল হক প্রিন্স তো সরাসরি বলেছেন, ‘জিমির কার্ডটি পরিকল্পিত।’ সারওয়ারের দাবি, ‘নির্দিষ্ট দুটি ক্লাবকে সুবিধা দিতে জিমিকে অন্যায়ভাবে তৃতীয় হলুদ কার্ডটা (ঊষার বিপক্ষে) দেওয়া হয়েছে।’ মোহামেডান ম্যানেজার প্রিন্স ফেডারেশন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকও। এমন চেয়ারে থেকেও তিনি ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক সাঈদের দিকে আঙুল তুলে বলেন, ‘সব সিদ্ধান্তই তিনি নেন একা, রাতের আঁধারে।’

সাঈদ অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন। জিমির নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মোহামেডানের দাবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সবকিছু বাইলজ মেনেই হয়েছে। মোহামেডান যদি ম্যাচে অংশগ্রহণ থেকে বিরতি থাকে, সে ক্ষেত্রে বাইলজ অনুযায়ীই কাজ হবে। আম্পায়ার মাঠে যাবে। তিনি তার হুইসেল বাজাবেন। প্রতিপক্ষ নিয়ম অনুযায়ী পয়েন্ট পাবে। সে ক্ষেত্রে হকি ফেডারেশনের কোনো দায়বদ্ধতা নেই।’

জিমি দ্বিতীয় হলুদ কার্ড পাওয়ার পর ফেডারেশন চিঠি দেয়নি বলে যে অভিযোগ মোহামেডানের, এ নিয়ে সাঈদ বলেন, ‘বাইলজের কোথাও লেখা নেই চিঠির মাধ্যমে এটা জানাতে হবে। অবহিত করার যে বিষয়টি উল্লেখ আছে, সেটা যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই তাদের করা হয়েছে।’

১৪ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ মোহামেডান। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আবাহনীর পয়েন্ট ৩৪। সমান ৩৪ পয়েন্ট ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মেরিনার ইয়াংসের। এই তিন দলেরই রয়েছে শিরোপা জয়ের সুযোগ। আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচের আগে বাংলাদেশ পুলিশের বিপক্ষে খেলবে মেরিনার্স। এই ম্যাচ যদি মেরিনার্স জেতে আর আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ ড্র হয় তাহলে চ্যাম্পিয়ন হবে মেরিনার্স। ঊষা ও আবাহনীর পয়েন্ট সমান হয়ে যাওয়ার সুযোগও আছে। কিন্তু মাঠের এই রোমাঞ্চই তো ভেস্তে যাওয়ার উপক্রম।

লক্ষ্ণৌর কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছিলেন শরিফুল

প্রকাশ: ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫০ পিএম
লক্ষ্ণৌর কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছিলেন শরিফুল
ছবি : সংগৃহীত

আইপিএলের এবারের মৌসুমে একমাত্র বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে খেলছেন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে ইতোমধ্যেই পাঁচ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন তিনি। বিসিবির কাছ থেকে ঠিকঠাক ছুটির অনুমতি পেলে এবারের আসরে দেখা যেতে পারতো আরেক পেসার শরিফুল ইসলামকেও।

লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস দলে নিতে চেয়েছিল এই বাঁ-হাতি পেসারকে। তারা শরিফুলকে পুরো মৌসুমের জন্য চাইলেও বিসিবি একমাসের বেশি ছুটি দিতে রাজি না হওয়ায় আইপিএল খেলা হয়নি তার। জিম্বাবুয়ে সিরিজের কথা ভেবে এক মাসের বেশি ছুটি বিবেচনা করা হয়নি।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) মিরপুর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের শরিফুল বলেন, ‘লক্ষ্ণৌ থেকে এসএমএস দিয়েছিল। তারা আমাকে চাচ্ছিল, কিন্তু এনওসির সময়টা খুব কম ছিল, যার জন্য তারা আর যোগাযোগ করেনি। যদি ফুল এনওসি দিত বিসিবি, তাহলে হতো। কিন্তু আমাদের যেহেতু জিম্বাবুয়ে সিরিজ আছে, সেটা চিন্তা করে এনওসি ওভাবে দেওয়া হয়েছিল।’

এবারের আসরে খেলার প্রস্তাব পেয়েও জাতীয় দলের সূচির কারণে খেলতে পারেননি তিনি। একবার প্রস্তাব পাওয়ায় ভবিষ্যতে আবারও আসতে পারে এমনটা আশা করছেন তিনি। ‘ইচ্ছে তো আছে, সুস্থ থাকলে যেভাবে যাচ্ছে এভাবে গেলে ইনশা আল্লাহ একদিন খেলব আইপিএল। যদি তখন কোনো খেলা না থাকে। আশা থাকবে, ইচ্ছেও আছে, সুযোগ পেলে ভালো কিছু করব ইনশা আল্লাহ।’

এর আগে, ২০২২ সালের আইপিএলে তাসকিনকে দলে চেয়েছিল তারা ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। কিন্তু জাতীয় দলের খেলা থাকায় তাসকিনেরও খেলা হয়নি আইপিএলে।

মেয়েদের ক্রিকেটে প্রথমবার ৩০০ রান তাড়া করে জিতল শ্রীলঙ্কা

প্রকাশ: ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫৭ পিএম
মেয়েদের ক্রিকেটে প্রথমবার ৩০০ রান তাড়া করে জিতল শ্রীলঙ্কা
ছবি : সংগৃহীত

ছেলেদের ক্রিকেটে ৩০০ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড নতুন কিছু নয় শ্রীলঙ্কা দলের জন্য। ১৯৯২ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩১৩ রান তাড়া করে ইতিহাসে প্রথম জিতেছিল তারাই। এই ঘটনাএখন অহরহই ঘটে থাকে আধুনিক ক্রিকেটে। তবে মেয়েদের ক্রিকেটে এই প্রথমবার কোনো দল ৩০০ রান করে জিতেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩০২ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছে সেই শ্রীলঙ্কাই।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) পচেফস্ট্রুমে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার ছুঁড়ে দেওয়া এই বিশাল লক্ষ্য অধিনায়ক চামারি আতাপাত্তুর অনবদ্য সেঞ্চুরিতে ইতিহাসের জন্ম দিয়েছে শ্রীলঙ্কার মেয়েরা। তার শতকে ৬ উইকেটের জয় পেয়ে সিরিজে ১-১ এ সমতা টেনেছে সফরকারীরা।

সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক লরা উলভার্টের সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ৩০১ রানের সংগ্রহ পায় প্রোটিয়া মেয়েরা। তিনি করেন ১৪৭ বলে ১৮৪ রান।

এই বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রোটিয়া অধিনায়কের মতো জ্বলে ওঠেন আতাপাত্তু ২৬টি চার ও ৫ ছয়ে তিনি করেন ১৩৯ বলে অপরাজিত ১৯৫ রান। ম্যাচসেরাও হয়েছেন তিনি।

জিম্বাবুয়ে নারী দলের দায়িত্ব পেলেন কোর্টনি ওয়ালশ

প্রকাশ: ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৪২ পিএম
জিম্বাবুয়ে নারী দলের দায়িত্ব পেলেন কোর্টনি ওয়ালশ
ছবি : সংগৃহীত

আটটি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের একটিতেও খেলা সুযোগ হয়নি জিম্বাবুয়ে নারী ক্রিকেট দলের। এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে মরিয়া তারা। সেই লক্ষ্যেই নারী দলের পরামর্শক হিসেবে কোর্টনি ওয়ালশকে নিয়োগ দিয়েছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট (জেডসি)।

বাংলাদেশ পুরুষ দলের সাবেক পেস বোলিং কোচকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করেছে জেডসি।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সে আসরকে সামনে রেখেই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এই কোচকে। তার কাছে মূল প্রত্যাশা হলো দলকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অভিষেক করানো। বাংলাদেশের কন্ডিশন সম্পর্কেও বেশ ভালো ধারণা রাখেন এই ক্যারিবীয়রা।

আগামী ২৫ এপ্রিল ১০ দলকে নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপের সেই বাছাইপর্ব শুরু হবে। বাছাইপর্বের শীর্ষ দুই দল হতে হবে বিশ্বকাপে খেলতে হলে। ইতোমধ্যেই আট দল বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করেছে।