ঢাকা ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Khaborer Kagoj

কারা জায়গা পেয়েছেন বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:২২ এএম
কারা জায়গা পেয়েছেন বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে
ছবি : সংগৃহীত

গতকাল বিসিবির বোর্ড মিটিংয়ে এসেছে বেশকিছু পরিবর্তন। আগের নির্বাচক কমিটির মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমন ব্দা পড়েছেন। প্রধান নির্বাচক হয়েছেন সাবেক অধিনায়ক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু এবং সাথে আছেন হান্নান সরকার। আগের কমিটি থেকে নির্বাচক পদে বহাল আছেন আব্দুর রাজ্জাক। সব ফরম্যাটে নতুন অধিনায়ক করা হয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তকে। একই সাথে ২০২৪ সালের জন্য কেন্দ্রীয় চুক্তি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

আগের মতো এবারও ২১ জন জায়গা পেয়েছেন বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে। চুক্তির মেয়াদ চলতি বছররে ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। বোর্ড সভা শেষে ঘোষণা করা হয় চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়দের নাম।

তিন সংস্করণের চুক্তিতেই আছেন সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল হোসেন ও শরিফুল ইসলাম। গতবার তিন সংস্করণের চুক্তিতে থাকলেও এবার বিসিবিতে চিঠি দিয়ে টেস্ট চুক্তিতে না রাখার অনুরোধ করায় তিনি নেই এবারের টেস্ট চুক্তিতে। আছেন বাকি দুই ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সংস্করণে। গতবার তিন সংস্করণেই ছিলেন সাকিব, লিটন, মিরাজ ও তাসকিন এই চারজন। এবার তিন সংস্করণে প্রথমবার জায়গা পেয়েছেন নতুন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন ও পেসার শরিফুল।

 গত কেন্দ্রীয় চুক্তির ২১ জনের মধ্যে এবারের চুক্তিতে নেই চারজন। সেই চারজনের মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত নাম সাবেক অধিনায়ক তামিম ইকবাল। নিজেই অনুরোধ করে সরেছেন চুক্তি থেকে। নেই চোটের কারণে লম্বা সময়ের জন্য মাঠের বাইরে চলে যাওয়া পেসার ইবাদত হোসেন। বাদ পড়েছেন আফিফ হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেনও। 
প্রথমবারের মতো চুক্তিভুক্ত হয়েছেন তাওহিদ হৃদয় ও তানজিম হাসান। হৃদয় ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি, এই দুই সংস্করণে সুযোগ পেয়েছেন। তানজিম শুধু ওয়ানডের চুক্তিতে।

শুধু ওয়ানডের চুক্তিতে আছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। গতবারও তিনি শুধু ওয়ানডের চুক্তিতেই ছিলেন।

এক বছর বিরতির পর আবারও চুক্তিভুক্ত হয়েছেন টেস্ট দলের ওপেনার মাহমুদুল হাসান। ২০২০ সালের পর আবার চুক্তি ঢুকেছেন অফ স্পিনার নাঈম হাসান। দুজনই শুধু টেস্টের চুক্তি পেয়েছেন।

গতবার টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি চুক্তিতে থাকা নুরুল হাসান এবার শুধু টি-টোয়েন্টির চুক্তিতে আছেন।

দেখে নেওয়া যান ২০২৪ সালের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কারা আছেন.....

ওয়ানডে সংস্করণ

নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম, মুশফিকুর রহিম, তাসকিন আহমেদ, তাওহিদ হৃদয়, মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, মাহমুদউল্লাহ ও তানজিম হাসান সাকিব।

টেস্ট সংস্করণ

নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম, মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক, তাইজুল ইসলাম, জাকির হাসান, মাহমুদুল হাসান, খালেদ আহমেদ ও নাঈম হাসান,

টি-টোয়েন্টি সংস্করণ

নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, তাওহিদ হৃদয়, মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, নাসুম আহমেদ, মেহেদী হাসান ও নুরুল হাসান।

সাকিব-তামিমের ‘ফাইনাল’ লড়াই

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:২০ পিএম
সাকিব-তামিমের ‘ফাইনাল’ লড়াই
ছবি : সংগৃহীত

ফরচুন বরিশাল-রংপুর রাইডার্স দুই দল আজ মুখোমুখি হবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে। যতটা সহজভাবে কথাটা লেখা হয়েছে, লড়াইয়ের উত্তাপ এত কম নয়। কারণ, দেশের দুই বড় তারকা সাকিব আল হাসান আর তামিম ইকবাল যে আজ আবার মুখোমুখি হবেন এই ম্যাচে। দুই ক্রিকেটারের দ্বন্দ্ব ও বিশ্বকাপে তামিমের থাকা না থাকা নিয়ে বিতর্কের কারণে দুই দলের লড়াইয়ে যোগ করেছে বাড়তি উন্মাদনা। অবশ্য এই উন্মাদনা শুধু দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে নয়, ছিল রবিন লিগ রাউন্ডের ম্যাচেও। লিগ পর্বে দুই দলের লড়াইয়ে গ্যালারি ছিল কানায় কানায় পূর্ণ। মিরপুরের গ্যালারি যে আজ ফের কানায় কানায় পূর্ণ থাকবে, সেটা অবশ্য অনুমান করাই যায়। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার জিতে ফাইনালে ওঠার সুযোগ আছে দুই দলের সামনে। এই সমীকরণ আরও বেশি উন্মাদনা যোগ করবে দুই দলের লড়াইয়ে।

এবারের বিপিএলে বরিশাল-রংপুর লড়াইকে বারবার নামকরণ করা হয়েছে সাকিব-তামিম লড়াই হিসেবে। সাধারণ দর্শক থেকে সংবাদমাধ্যম সবাই বরিশাল-রংপুর ম্যাচে বারবার ফোকাসে এনেছে সাকিব-তামিমকে। দুই দলের দুই বড় তারকাকে সামনে আনা হলেও তাদের লড়াই অবশ্য হয়েছে (১-১) সমানে সমান। মিরপুরে প্রথম সাক্ষাতে তামিমের বরিশাল রংপুরকে হারায় ৫ উইকেটে। চট্টগ্রামে ফিরতি লড়াইয়ে ১ উইকেটে ম্যাচ জিতে সমতায় ফেরে সাকিবের দল।  রংপুরের জয়ের এই দিন তৈরি হয়ে খানিকটা বিতর্ক। তামিমকে আউট করে উদযাপন করেন সাকিব আল হাসান। পরে সাকিবের আউটের পর ওই উদযাপনের মিমিক্রি করেন তামিম ইকবাল। ফলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। কেউ তামিমের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন, কেউবা ধুয়ে দেন।

ফের একই উপলক্ষ এনে দিচ্ছে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে এই দুই দলের লড়াই। বিপিএলের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ এটি। সাকিব-তামিম লড়াইয়ে যার দল জিতবে তারা উঠবে ফাইনালে। সেখানে তাদের অপেক্ষায় আছে বিপিএলের সফলতম দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। যারা হারবে তাদের বিপিএল যাত্রা থামবে এখানেই। ফলে দুই দলের জন্য এটা ‘অলিখিত’ ফাইনাল।

এমন গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ের আগে কথা বলেন দুই দলের কোচ। দুই দলের গত লড়াইয়ে তামিম আউট হন সাকিবের বলে। অন্যদিকে ফজলহক ফারুকির বলে তামিমের আউট হওয়ার জুজু আছে। এটাকে মনস্তাত্ত্বিক লড়াই ভাবতে নারাজ বরিশাল কোচ মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, ‘এখানে বলে বলে খেলা হয়। তামিম যখন ব্যাটিং করে, কে বল করছে, সেটা দেখে না। সেটা ভালো বল না খারাপ বল, মানে ক্রিকেটাররা যখন ব্যাটিং করে বল দেখে খেলে। চেহারা দেখে ক্রিকেট খেলা হয় না।’ অন্যদিকে নিজেদের কম্বিনেশন নিয়ে মিজানুর বলেন, ‘দল অনুযায়ী পরিকল্পনা করা হয়। বাইরে থেকে যদি মনে করেন, কোনো পরিকল্পনা হচ্ছে না, তাহলে তো এটা ভুল ধারণা। প্রতিপক্ষ দলের শক্তি অনুযায়ী নিজের দলের পরিকল্পনা করা হয়। সে ক্ষেত্রে পরিকল্পনার মাঝেমধ্যে পরিবর্তন হয়।’ পাশাপাশি এই লড়াইকে সাকিব-তামিম লড়াইয়ের মর্যাদা দিতে চান না মিজানুর রহমান। বরং, এই ম্যাচকে দেখছেন বরিশাল-রংপুর লড়াই হিসেবে।

অন্যদিকে রংপুর রাইডার্স কোচ সোহেল ইসলামের মাথাতেও আছে একই ভাবনা। ব্যক্তির চেয়ে দলকে বড় হিসেবে দেখতে চান। এই ম্যাচে সাকিব-তামিমের পাশাপাশি স্পটলাইটে থাকবেন দেশি-বিদেশি অন্য ক্রিকেটাররাও। বরিশাল শিবিরে আছেন ডেভিড মিলার, কাইল মায়ার্স, ওবেদ ম্যাকয়, আহমেদ শেহজাদদের মতো বিদেশিরা। দেশিদের মধ্যে বরিশালের জার্সিতে মাঠ মাতাচ্ছেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজদের মতো ক্রিকেটাররা। শক্তির বিচারে ভারসাম্য আছে দলটিতে। 

অন্যদিকে রংপুরও পিছিয়ে নেই। নুরুল হাসান সোহান, শেখ মাহেদি, হাসান মাহমুদের মতো দেশিরা খেলছেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে। বিদেশি কোটাতেও বিশ্বমানের ক্রিকেটার আছে দলটিতে। তাদের হয়ে খেলবেন নিকোলাস পুরান, মোহাম্মদ নবী, ফজলহক ফারুকি, জিমি নিশামদের মতো ক্রিকেটাররা। দুই দলের ডেরায় থাকা বড় বড় নামে স্পষ্ট জমজমাট লড়াই উপহার দেবে দুই দল। তবে সব ছাপিয়ে লড়াইটা বারবারই পরিচিতি পাচ্ছে সাকিব-তামিম লড়াই হিসেবে।

হলান্ডের একক পারফরম্যান্সে বিধ্বস্ত লুটন

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৩৮ এএম
হলান্ডের একক পারফরম্যান্সে বিধ্বস্ত লুটন
ছবি : সংগৃহীত

এফএ কাপের ম্যাচে লুটন টাউনকে নিয়ে যেন আর্লিং হলান্ড একাই ছেলে খেলায় মেতেছিল। পঞ্চম রাউন্ডের ম্যাচে ৬-২ গোলের জয়ে তিনি একাই করেন  ৫ গোল। তার করা পাঁচ গোলের প্রতিটিই এসেছে কেভিন ডি ব্রুইনার অ্যাসিস্টে। অন্য গোলটি করেন মাতেও কোভাচিচ।

গেল বছর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিপজিগের বিপক্ষে এমন কীর্তি গড়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো ক্যারিয়ারে এক ম্যাচে পাঁচ গোল করলেন হালান্ড।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) লুটনের মাঠে শুরু থেকেই দাপুটে ছিল ম্যানসিটি। ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটেই কেভিন ডি ব্রুইনার বাড়ানো বলে জাল খুঁজে নেন আর্লিং হালান্ড। আবারও ডি ব্রুইনার পাস থেকে ১৮ মিনিটে গোল করেন নরওয়েজিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই ম্যাচে ৪০তম মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিকপূর্ণ করেন হলান্ড। হলান্ডে চাপে থাকা লুটন একটি গোল শোধ করে বিরতিতে যাওয়ার আগে। স্বাগতিকদের হয়ে গোলের দেখা পান জর্ডান ক্লার্ক।

বিরতি থেকে ফিরে লড়াই জমিয়ে তোলার আভাস দেন ক্লার্ক আরেকবার সিটির জালে বল জড়িয়ে।

কিন্তু তা হতে দেয়নি আর্লিং হালান্ড। ৫৫ ও ৫৮ মিনিটে আরো দুইবার বল জালে পাঠিয়ে ম্যানসিটিকে এগিয়ে নেন ৫-২ ব্যবধানে। হালান্ডের এই দুই গোলেও সহায়তা করেন ডি ব্রুইন।

হলান্ডের দিলে ৭২ মিনিটে আরো একটি গোল পেয়ে যায় ম্যানসিটি। কোভাচিচের পা থেকে। জন স্টন্সের পাসে লক্ষ্যভেদ করেন ক্রোয়েশিয়ান এই মিডফিল্ডার।

দুর্দান্ত খেলতে থাকা হলান্ডকে ৭৭তম মিনিটে তুলে নিয়ে হুলিয়ান আলভারেজকে মাঠে নামান পেপ গার্দিওলা। তাতে আর ব্যবধান বাড়াতেনা পারলে ৬-২ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ম্যানচেস্টার সিটি। 

টাইগারদের নতুন কোচ হেম্প-অ্যাডামস

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৫০ এএম
টাইগারদের নতুন কোচ হেম্প-অ্যাডামস
ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় দলের নতুন ব্যাটিং ও পেস বোলিং কোচের নাম ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি জানিয়েছে, ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে নিয়োগ পেয়েছেন সাবেক বারমুডিয়ান ব্যাটার ডেভিড হেম্প ও পেস বোলিং কোচের দায়িত্বাভার এসেছে হিসেবে নিউজিল্যান্ডের সাবেক পেস অলরাউন্ডার আন্দ্রে অ্যাডামসের কাঁধে।

নতুন দুই কোচের সঙ্গেই দুই বছরের জন্য চুক্তি করেছে বিসিবি। আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজ দিয়ে দলের সাথে কাজ শুরু করবেন তারা। আগামী ৪ মার্চ টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু হবে দুই দলের সিরিজ।

এর আগে, বাংলাদেশ এইচপি দলের কোচ ছিলেন ডেভিড হেম্প। নিউজিল্যান্ড সফরেও ছিলেন তিনি জাতীয় দলের ভারপ্রাপ্ত ব্যাটিং কোচ হিসেবে। এছাড়াও দায়িত্ব পালন করেছেন পাকিস্তান নারী ক্রিকেট দলের হেড কোচ হিসেবে।

অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ড নারী দলের পেস বোলিং কোচ ছিলেন সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত টাইগারদের নতুন বোলিং কোচ অ্যাডামস। খণ্ডকালীন পেস বোলিং কোচ হিসেবে যুক্ত ছিলেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলেও। 

এবার যুক্তরাষ্ট্রে বাতিল আর্জেন্টিনার ম্যাচ

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:২৩ এএম
এবার যুক্তরাষ্ট্রে বাতিল আর্জেন্টিনার ম্যাচ
ছবি : সংগৃহীত

নাটকীয়তা থামছেই না আর্জেন্টিনার পরবর্তী প্রীতি ম্যাচের সূচি নিয়ে। ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল চীনে। কিন্তু ইন্টার মায়ামির হয়ে লিওনেল মেসি প্রাক্–মৌসুম প্রস্তুতি ম্যাচে হংকংয়ে গিয়েও মাঠে না নামায় শুরু হয় বিতর্ক। আর্জেন্টিনার চীন সফরে মেসি যদি না খেলেন এই অনিশ্চয়তায় সেখানে হতে যাওয়া পূর্বনির্ধারিত ম্যাচ দুটি বাতিল করে দেয় চীন। পরবর্তীতে সেই ম্যাচের ভেন্যু যুক্তরাষ্ট্র ঠিক করা হলেও, এবার বাতিল হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে হতে যাওয়া আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া  ম্যাচটিও।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন জানিয়েছে, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রে খেলবে না তারা। যদিও, সমস্যাটি আর্জেন্টিনা দলের নয়। মূলত নাইজেরিয়া দলের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ভিসাজনিত জটিলতা তৈরি হওয়াতেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এএফএ।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি বাতিল হলেও সূচি অনুযায়ী আগামী মার্চে মার্কিন মুলুকে প্রীতি ম্যাচ দুটোই খেলবে বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা। নাইজেরিয়ার পরিবর্তে এখন কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলবে তিনবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

এই ব্যাপারে এএফএ জানিয়েছে, আগামী মাসের ২২ তারিখ এল সালভাদরের বিপক্ষে প্রথম প্রীতি ম্যাচটি খেলবে আর্জেন্টিনা ফিলাডেলফিয়ার লিংকন ফাইন্যান্সিয়াল ফিল্ডে। চার দিন পর ২৬ মার্চ লস অ্যাঞ্জেলেস কলোসিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলবেন মেসিরা।

আগামী জুনে কোপা আমেরিকার আগে ইকুয়েডর ও গুয়াতেমালার বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রেই দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে আলবিসেলেস্তেরা। ৯ জুন শিকাগোর সোলজার ফিল্ডে ইকুয়েডরের বিপক্ষে ও ১৪ জুন মেরিল্যান্ডের ল্যান্ডোভারের ফেডএক্স ফিল্ডে গুয়াতেমালার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা।

পাপনকে ডি মারিয়ার উপহার

প্রকাশ: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:১৪ পিএম
পাপনকে ডি মারিয়ার উপহার
ছবি : সংগৃহীত

কাতার বিশ্বকাপ চলাকালে বাংলাদেশ থেকে অভাবনীয় সমর্থন পেয়েছিল আর্জেন্টিনা দল। এরই ধারাবাহিকতায় গত বছর বাংলাদেশ সফরে আসেন বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস। এরই ধারাবাহিকতায় আরেক আর্জেন্টাইন আনহেল ডি মারিয়াকে আনার উদ্যোগ নিয়েছেন কলকাতার ক্রীড়া উদ্যোক্ততা শতদ্রু দত্ত। 

এর আগেই অবশ্য বাংলাদেশের ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপনের জন্য বিশেষ উপহার পাঠান ডি মারিয়া। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শতদ্রু দত্ত নিজেই।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাপনের জন্য ডি মারিয়ার পাঠানো জার্সির ছবি আপলোড করে শতদ্রু দত্ত লেখেন, ‘বাংলাদেশের ক্রীড়ামন্ত্রীর জন্য কিংবদন্তি আনহেল ডি মারিয়ার ব্যক্তিগত স্বাক্ষরকৃত জার্সি.. ’

ক্রীড়ামন্ত্রীর পাশাপাশি বিসিবি সভাপতি হিসেবে এক দশকের বেশি সময় ধরে দায়িত্ব পালন করছেন নাজমুল হাসান পাপন। সম্প্রতি ক্রীড়ামন্ত্রীর দায়িত্ব উঠেছে তার কাঁধে। তাই ডি মারিয়ার আসন্ন সফর উপলক্ষে পাপনের জন্য বিশেষ স্বাক্ষরিত জার্সি আগেভাগেই প্রস্তুত করেছেন শতদ্রু দত্ত।