মানব কল্যাণ প্রবন্ধের বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর (MCQ) । খবরের কাগজ
ঢাকা ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

২০২৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি বাংলা প্রথম পত্র বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪১ এএম
বাংলা প্রথম পত্র বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

প্রবন্ধ: মানবকল্যাণ

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর 

১৯. ‘ওপরের হাত সব সময় নিচের হাত থেকে শ্রেষ্ঠ’ উক্তিটি কার?
ক. আবুল ফজল খ. গৌতম বুদ্ধ
গ. ইসলামের নবীর ঘ. জনৈক ঋষি
উত্তর: গ. ইসলামের নবীর।
২০. ‘নিচের হাত’ বলতে লেখক কী বুঝিয়েছেন?
ক. পরোপকারী খ. গ্রহীতা
গ. মহৎ হৃদয় ঘ. দাতা
উত্তর: খ. গ্রহীতা।
২১. ‘ওপরের হাত’ বলতে কাকে বুঝিয়েছেন?
ক. পরোপকারী খ. গ্রহীতা
গ. মহৎ হৃদয় ঘ. দাতাকে
উত্তর: ঘ. দাতাকে।
২২. ‘নিচের হাত’ যা প্রকাশ করে- 
ক. পরোপকারী খ. দাতা
গ. মহৎ হৃদয় ঘ. আত্মমর্যাদাহীনতা
উত্তর: ঘ. আত্মমর্যাদাহীনতা।
২৩. দান বা ভিক্ষা গ্রহণকারীর মধ্যে কোনটি প্রতিফলিত হয়?
ক. বিষণ্নতা খ. সততা
গ. মৌনতা ঘ. দীনতা
উত্তর: ঘ. দীনতা।
২৪. ভিক্ষা গ্রহণকারীর দীনতা কোথায় প্রতিফলিত হয়?
ক. মুখমণ্ডলে খ. সর্ব-অবয়বে
গ. ব্যবহারের মাঝে ঘ. হৃদয়ের গভীরে
উত্তর: খ. সর্ব-অবয়বে।
২৫. ভিক্ষা গ্রহণকারীর দীনতার প্রতিফলিত অবস্থাটি কেমন?
ক. নির্মোহ খ. সাদামাটা
গ. বীভৎস ঘ. নগণ্য
উত্তর: গ. বীভৎস।
২৬. মনুষ্যত্ব আর মানব-মর্যাদার দিক থেকে অনুগ্রহকারী আর অনুগৃহীতের মধ্যে পার্থক্য কেমন?
ক. আকাশ-পাতাল খ. সীমাহীন
গ. সামান্য ঘ. নগণ্য
উত্তর: ক. আকাশ-পাতাল।
২৭. কোনটি জাতির যৌথ জীবন এবং চেতনার প্রতীক?
ক. রাষ্ট্র খ. জনগণ
গ. সমাজ ঘ. পরিবার
উত্তর: ক. রাষ্ট্র।
২৮. জাতিকে আত্মমর্যাদাসম্পন্ন করে তোলা কার দায়িত্ব?
ক. রাষ্ট্রের খ. জনগণ
গ. সমাজ ঘ. পরিবার
উত্তর: ক. রাষ্ট্রের।
২৯. ‘মানবকল্যাণ’ প্রবন্ধানুসারে রাষ্ট্রের বৃহত্তর দায়িত্ব কোনটি?
ক. অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করা
খ. জাতীয় রপ্তানির পরিমাণ বাড়ানো
গ. জাতিকে আত্মমর্যাদাসম্পন্ন করে তোলা
ঘ. জাতির অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা
উত্তর: গ. জাতিকে আত্মমর্যাদাসম্পন্ন করে তোলা।
৩০. কখন রাষ্ট্র আত্মমর্যাদাসম্পন্ন নাগরিক সৃষ্টি করতে ব্যর্থ হয়?
ক. যখন হাতপাতা আর চাটুকারিতাকে প্রশ্রয় দেয়
খ. যখন বিদেশি পণ্য আমদানির পরিমাণ বৃদ্ধি করে
গ. যখন রপ্তানির পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পায়
ঘ. যখন জনগণ তাদের আত্মগৌরব বিস্মৃত হয়
 
আরও পড়ুন:
 
উত্তর: ক. যখন হাতপাতা আর চাটুকারিতাকে প্রশ্রয় দেয়।
৩১. কোন কাজ মানবকল্যাণ নয়-
ক. অপরের কল্যাণে স্বার্থ বিসর্জন 
খ. অপরের ব্যথায় ব্যথিত হওয়া
গ. অপরকে সাহায্য-সহযোগিতা করা
ঘ. দয়া-করুণার দ্বারা দান-খয়রাত করা
উত্তর: ঘ. দয়া-করুণার দ্বারা দান-খয়রাত করা।
৩২. মনুষ্যত্ববোধ ও মানব-মর্যাদা ক্ষুণ্ন হয় কীভাবে?
ক মানব কল্যাণের প্রকৃত অর্থ বুঝতে না পারায়
খ. ভিক্ষা-বৃত্তিকে পেশা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায়
গ. বেশি বেশি দান-খয়রাত না করায়
ঘ. অধিক পরিমাণ সম্পদ সঞ্চিত করে রাখায়
উত্তর: খ. ভিক্ষা-বৃত্তিকে পেশা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায়।
৩৩. মানব মর্যাদাকে ক্ষুণ্ন করার বিষয়টি আমাদের উপলব্ধি হয় না, কারণ-
ক. মানব মর্যাদাকে অবমাননা করার কারণে
খ. মানব কল্যাণ থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায়
গ. মানব কল্যাণের প্রকৃত তাৎপর্য না বোঝায়
ঘ. মানব কল্যাণের উল্টো অর্থ করার কারণে
উত্তর: গ. মানব কল্যাণের প্রকৃত তাৎপর্য না বোঝায়।
৩৪. রাষ্ট্র যেভাবে আত্মমর্যাদাসম্পন্ন নাগরিক সৃষ্টি করতে পারে-
ক. বৈদেশিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি করার মাধ্যমে
খ. হাতপাতাকে প্রশ্রয় না দেওয়ার মাধ্যমে
গ. বিদেশি পণ্যের আমদানির মাধ্যমে
ঘ. দেশের জনগণকে মর্যাদার কথা বুঝিয়ে
উত্তর: খ. হাতপাতাকে প্রশ্রয় না দেওয়ার মাধ্যমে।
৩৫. অনুগ্রহকারী এবং অনুগৃহীতের মধ্যে আকাশ-পাতাল পার্থক্য কেন?
ক. এ সম্পর্ক তাৎপর্যহীন বলে
খ. আত্মিক সম্পর্কহীন হওয়ায়
গ. মনুষ্যত্বের সম্পর্ক না থাকায়
ঘ. সম্পূর্ণ অমানবিক আচরণ বলে
উত্তর: খ. আত্মিক সম্পর্কহীন হওয়ায়।
৩৬. দয়া-বশবর্তী দান-খয়রাত মানবকল্যাণ নয়, কারণ-
ক. প্রকৃত মানবকল্যাণ সাধিত হয় না বলে
খ. মানুষের কোনো উপকার সাধিত হয় না বলে
গ. মানুষের চরম ক্ষতি সাধন করে বলে
ঘ. মানুষের চিন্তা শক্তিকে নষ্ট করে বলে
উত্তর: ক. প্রকৃত মানবকল্যাণ সাধিত হয় না বলে।
৩৭. মনুষ্যত্বের অবমাননা বলতে লেখক কী বুঝিয়েছেন?
ক. মানুষের বোধশক্তি নষ্ট হওয়াকে
খ. মানুষের অকল্যাণ সাধিত হওয়াকে
গ. মানুষের অভাব দীর্ঘস্থায়ী হওয়াকে
ঘ. মানুষের মর্যাদাবোধ ক্ষুণ্ন হওয়াকে
উত্তর: ঘ. মানুষের মর্যাদাবোধ ক্ষুণ্ন হওয়াকে।
৩৮. মানবকল্যাণের উৎস মানুষের মর্যাদাবোধ বৃদ্ধির মধ্যেই নিহিত কেন?
ক. অর্থনৈতিক মুক্তি সাধিত হয় বলে
খ. মনুষ্যত্ববোধ অর্জন সম্ভব হয় বলে
গ. মহানুভবতা অর্জন সম্ভব হয় বলে
ঘ. মানুষের প্রকৃত অবস্থা তুলে ধরে বলে
উত্তর: খ. মনুষ্যত্ববোধ অর্জন সম্ভব হয় বলে।
৩৯. হজরত মুহাম্মদ (সা.) ভিক্ষুককে কুড়াল কিনে দিয়েছিলেন কেন?
ক. পরিশ্রম করে অর্থ উপার্জনের জন্য
খ. শ্রমজীবী মানুষ হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠা লাভের জন্য
গ. স্বাবলম্বনের মাধ্যমে মর্যাদার সঙ্গে জীবনযাপনের জন্য
ঘ. ভিক্ষা ছেড়ে কাঠ কেটে জীবিকা নির্বাহের জন্য
উত্তর: গ. স্বাবলম্বনের মাধ্যমে মর্যাদার সঙ্গে জীবনযাপনের জন্য।
৪০. করুণার বশবর্তী হয়ে দান-খয়রাতের অবশ্যম্ভাবী পরিণতি কী?
ক. মনুষ্যত্বের অপমান
খ. মনুষ্যত্বের উন্নয়ন
গ. মনুষ্যত্বের বিকাশ
ঘ. মানব-মর্যাদা বৃদ্ধি
উত্তর: ক. মনুষ্যত্বের অপমান।
৪১. মানবকল্যাণের উৎস কোথায় নিহিত?
ক. মানুষকে জ্ঞানী করা ও সামাজিক বিকাশের মধ্যে
খ. মানুষের আর্থিক সমৃদ্ধি ও আর্থিক উন্নয়নের মধ্যে
গ. ব্যক্তিগত সমৃদ্ধির পাশাপাশি রাষ্ট্রের উন্নয়নের মধ্যে
ঘ. মানুষের মর্যাদাবৃদ্ধি ও মানবিক চেতনা বিকাশের মধ্যে
উত্তর: ঘ. মানুষের মর্যাদাবৃদ্ধি ও মানবিক চেতনা বিকাশের মধ্যে।
 
লেখক: 
সহকারী অধ্যাপক, বাংলা বিভাগ
আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, ঢাকা
 
জাহ্নবী
 

কাঞ্চনমালা আর কাঁকনমালা গল্পের বলনামূলক প্রশ্নোত্তর, ৫ম শ্রেণি-বাংলা

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৭:০৪ পিএম
কাঞ্চনমালা আর কাঁকনমালা গল্পের বলনামূলক প্রশ্নোত্তর, ৫ম শ্রেণি-বাংলা

বর্ণনামূলক প্রশ্ন ও উত্তর

গল্প: কাঞ্চনমালা আর কাঁকনমালা
প্রশ্ন: নিচের শব্দগুলো দিয়ে বাক্য রচনা করো।
ব্যথায় টনটন করা, খুশিতে ঝলমলিয়ে ওঠা, ঝকমকিয়ে ওঠা।
উত্তর: ব্যথায় টনটন করা- খুব ব্যথা করা। সুচবেঁধা রাজার শরীর ব্যথায় টনটন করত দিনরাত।
খুশিতে ঝলমলিয়ে ওঠা- মন আনন্দে ভরে ওঠা। রাখাল বন্ধুর বাঁশির সুর শুনে রাজপুত্রের মন খুশিতে ঝলমলিয়ে উঠত।
ঝকমকিয়ে ওঠা- ঝলমল করা। শীতের সকালে সূর্য উঠলেই চারপাশ ঝকমকিয়ে ওঠে।
প্রশ্ন: রাজপুত্র কোথায় বসে রাখাল বন্ধুর বাঁশি শুনত?
উত্তর: রাজপুত্র গাছতলায় বন্ধুর গলা জড়িয়ে বসে সেই বাঁশির সুর শুনত।
প্রশ্ন: তোমার মা বাড়িতে কী ধরনের পিঠা বানায় লেখ।
উত্তর: আমার মা বাড়িতে অনেক ধরনের পিঠা বানায়। যেমন- কুলি পিঠা, চিতই পিঠা, তেল পিঠা, নকশি পিঠা, ক্ষীর, খেজুরের পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, ভাপা পিঠা ইত্যাদি।
প্রশ্ন: অচেনা লোকটি রাজার প্রাণ রক্ষার জন্য এগিয়ে না এলে কী হতো?
উত্তর: অচেনা লোকটি রাজার প্রাণ রক্ষার জন্য এগিয়ে না এলে হয়তো রাজার শরীর থেকে সুচ বেরিয়ে আসত না। রাজা মারা যেতে পারত। কাঞ্চনমালার দুঃখের দিন শেষ হতো না।
প্রশ্ন: রাজপুত্র রাখাল বন্ধুর কথা ভুলে যায় কেন?
উত্তর: রাজপুত্রের সঙ্গে সেই রাজ্যের রাখাল ছেলের খুব ভাব ছিল। দুই বন্ধু পরস্পরকে খুব ভালোবাসত। কিন্তু রাজপুত্র যখন রাজা হয় তখন সে তার রাখাল বন্ধুকে ভুলে যায়। রাজপুত্র রাজা হওয়ার পর লোকলস্কর, সৈন্যসামন্তে গমগম করে রাজপুরী। রাজপুরী আলো করে থাকে রানি কাঞ্চনমালা। চারদিকে সুখ আর সুখ। এত সুখের মধ্যে রাজপুত্রের রাখাল বন্ধুর কথা মনে পড়ে না। রাজপুত্র রাখাল বন্ধুর কথা ভুলে যায়।
প্রশ্ন: তুমি কি মনে করো অচেনা লোকটির কারণেই রাজার প্রাণ রক্ষা পেল?
উত্তর: আমি মনে করি অচেনা লোকটির কারণেই রাজার প্রাণ রক্ষা পেল। কারণ অচেনা লোকটিই রাজার শরীরের সব সুচ খুলে তাকে মুক্ত করেন।
প্রশ্ন: নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ।
সুখ, মায়া, চেনা, স্বাদ, রাজপুত্র, নগর, ভালো, নির্দয়, কান্না, কষ্ট, রানি, দম্ভ, সন্ধ্যা।
উত্তর: প্রদত্ত শব্দ     বিপরীত শব্দ
    সুখ    দুঃখ
    চেনা    অচেনা
    স্বাদ    বিস্বাদ
    রাজপুত্র    রাজকন্যা
    নগর    গ্রাম
    ভালো    মন্দ
    নির্দয়    সদয়
    কান্না    হাসি
    কষ্ট    আনন্দ
    রানি    রাজা
    দম্ভ    অদম্ভ
    সন্ধ্যা    সকাল

গৌরাঙ্গ কুমার মন্ডল, সহকারী শিক্ষক, ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বসুন্ধরা শাখা, ঢাকা/ আবরার জহিন

 

৩টি Rearrangement HSC- ইংরেজি ১ম পত্র

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৬:৫৭ পিএম
৩টি  Rearrangement HSC- ইংরেজি ১ম পত্র

Rearrangement 

Rearrange the following sentences to make a coherent order.
1. (a) The cook was very stubborn. 
(b) The cook could not check his temptation and ate up one of the drumsticks. 
(c) The master was very cautious and was not to be fooled so easily. 
(d) The cook was more than clever. 
(e) He replied that it was a one-legged duck. 
(f) One a cook roasted a duct for his and it looked very delicious. 
(g) When the master sat to have his meal, he noticed that one of the legs was missing. 
(h) He said that there was no one legged duck.
(i) He asserted that this duck had only one leg. 
(j) He asked what had happened to the other leg. 
Ans: f, b, g, j, d, e, c, h, a, i.
2. (a) One day he was very hungry. 
(b) The grapes were too high for him to reach. 
(c) Again and again, he jumped. 
(d) At last, he entered a vineyard. 
(e) Once upon a time there lived a fox in a forest. 
(f) But every time he failed to reach the grapes. 
(g) At last, being tired he left the place saying that the grapes were sour. 
(h) He took a run and a jump to reach the bunch of grapes, but he could not reach it.
(i) He looked for food everywhere but could not find any. 
(j) He saw ripe grapes hanging up on the vines. 
Ans: e, a, i, d, j, b, h, c, f, g.
3. (a) The king was very fond of knowing his future from astrologers. 
(b) The king called him to the palace. 
(c) At this the king got furious and condemned him to death. 
(d) A good astrologer happened to visit his capital. 
(e) Once there was a king. 
(f) With ready wit, he said, ‘The stars declare that I will die just before week of your death.’ 
(g) But another thought crossed his mind before the astrologer was removed for execution. 
(h) The king then said, ‘How long will you live?’
(i) The astrologer said something unpleasant. 
(j) He then thought for a while for some ways of escape. 
Ans: e, a, d, b, i, c, g, h, j, f.

মো. মনসুর আলম, সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় চেয়ারম্যান, ইংরেজি বিভাগ, ঢাকা কমার্স কলেজ, ঢাকা/ আবরার জাহিন

ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার জ্ঞানমূলক প্রশ্নোত্তর- HSC বাংলা প্রথমপত্র

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৬:৫২ পিএম
ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার জ্ঞানমূলক প্রশ্নোত্তর- HSC বাংলা প্রথমপত্র

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর 

প্রশ্ন-১. শামসুর রাহমান কত খ্রিষ্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন?
উত্তর: শামসুর রাহমান ১৯২৯ খ্রিষ্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন।
প্রশ্ন-২. ‘দৈনিক বাংলা’ পত্রিকার আগের নাম কী?
উত্তর: ‘দৈনিক বাংলা’ পত্রিকার আগের নাম ‘দৈনিক পাকিস্তান’।
প্রশ্ন-৩. শামসুর রাহমানের প্রথম কবিতা কোন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়?
উত্তর: শামসুর রাহমানের প্রথম কবিতা ‘সাপ্তাহিক সোনার বাংলা’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।
প্রশ্ন-৪. ‘বিধ্বস্ত নীলিমা’ কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কে?
উত্তর: ‘বিধ্বস্ত নীলিমা’ কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা শামসুর রাহমান।
প্রশ্ন-৫. কবি শামসুর রাহমান কত খ্রিষ্টাব্দে মৃত্যুবরণ করেন?
উত্তর: কবি শামসুর রাহমান ২০০৬ খ্রিষ্টাব্দে মৃত্যুবরণ করেন।
প্রশ্ন-৬. কোন ফুল শহরে নিবিড় হয়ে ফুটেছে?
উত্তর: কৃষ্ণচূড়া ফুল শহরে নিবিড় হয়ে ফুটেছে।
প্রশ্ন-৭. ‘ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯’ কবিতায় কোন ফুলের কথা উল্লেখ রয়েছে?
উত্তর: ‘ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯’ কবিতায় কৃষ্ণচূড়া ফুলের কথা উল্লেখ রয়েছে।
প্রশ্ন-৮. হেঁটে যেতে যেতে কৃষ্ণচূড়াগুলোকে কবির কাছে কী বলে মনে হয়?
উত্তর: কৃষ্ণচূড়াগুলোকে কবির কাছে শহিদের ঝলকিত রক্তের বুদবুদ বলে মনে হয়।
প্রশ্ন-৯.‘শহিদের ঝলকিত....স্মৃতিগন্ধে ভরপুর। উপরের শূন্যস্থানে কী হবে?
উত্তর: ‘শহিদের ঝলকিত রক্তের বুদবুদ স্মৃতিগন্ধে ভরপুর।’
প্রশ্ন-১০. সারা দেশ কাদের অশুভ আস্তানা?
উত্তর: সারা দেশ ঘাতকের অশুভ আস্তানা।
প্রশ্ন-১১. ঘাতকের থাবার সম্মুখে বুক পাতে কে?
উত্তর: ঘাতকের থাবার সম্মুখে বুক পাতে 
বরকত।
প্রশ্ন-১২. ‘সালামের চোখ আজ’ কী?
উত্তর: সালামের চোখ আজ আলোচিত ঢাকা।
প্রশ্ন-১৩. সালামের মুখে কী দেখা যায়?
উত্তর: সালামের মুখে দেখা যায় সবুজ-শ্যামল পূর্ববাংলা।
প্রশ্ন-১৪. কার হাত থেকে অবিনাশী বর্ণমালা ঝরে পড়ে?
উত্তর: সালামের হাত থেকে অবিনাশী বর্ণমালা ঝরে পড়ে।

আবু সায়েম মো. জামিল, সহকারী অধ্যাপক, বাংলা বিভাগ, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, ঢাকা/আবরার জাহিন

ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার মূলভাব - HSC বাংলা প্রথমপত্র

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৬:৪৭ পিএম
ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার মূলভাব - HSC বাংলা প্রথমপত্র

 

কবিতা: ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯
মূলভাব


প্রশ্ন: ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ কবিতার মূলভাব লেখ।

উত্তর: মূলভাব: ১৯৫২ থেকে ১৯৬৯- এই দীর্ঘ সময়ে বাঙালির নতুন প্রজন্ম যে বায়ান্নর চেতনা থেকে দূরে সরে যায়নি তার প্রমাণ ‘ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯’ কবিতা। নতুন প্রজন্ম স্বাধিকার আদায়ে উজ্জীবিত হয়েছিল ১৯৬৯ সালে। এর পটভূমি বা প্রেক্ষাপট সৃষ্টি হয়েছিল ১৯৫২ সালে বাঙালি জাতীয়তাবাদের গণবিস্ফোরণে। এরপর বাঙালি আর পেছন ফিরে তাকায়নি। শামসুর রাহমানের ‘ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯’ কবিতাটি নেওয়া হয়েছে কবির ‘নিজ বাসভূমে’ কাব্যগ্রন্থ থেকে। দেশপ্রেম, গণজাগরণ এবং সংগ্রামী চেতনার কবিতা ‘ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯’। উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থানের প্রেক্ষাপটে লেখা এই কবিতায় স্মৃতিচারণ করা হয়েছে বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের। ১৯৬৯-এ পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বাঙালি জাতির গণ-আন্দোলনের বিপ্লবী চিত্র এ কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে। ১৯৬৯ সালে জাতিগত শোষণ ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে এ দেশের মানুষ ক্ষুব্ধ হয়ে প্রত্যন্ত গ্রামগঞ্জ, হাটবাজার, কল-কারখানা, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঢাকার রাজপথে জড়ো হয় এবং গণ-আন্দোলনের মাধ্যমে তারা নিজেদের শক্তির গণজাগরণ ঘটায় সারা দেশে। কবি এই আপামর মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত সংগ্রামী চেতনাকে অনন্য এক শিল্পভাষ্যে, প্রতীকী অবয়বে তুলে ধরেছেন এ কবিতায়। কবিতাটি একাধারে ইতিহাসকে তুলে ধরেছে, অন্যদিকে ইতিহাসের বর্ণনা থেকেই উঠে এসেছে- ১৯৬৯ সালেই বাঙালির চোখে-মুখে সবুজ-শ্যামল নতুন বাংলাদেশের মুখচ্ছবি স্পষ্ট হচ্ছিল। এই প্রতিবাদী বাঙালির আরেক নাম বরকত, সালাম। কবির চেতনায় বরকত-সালাম ১৯৬৯ সালেও ঢাকার রাজপথে ছিল। কারণ ১৯৫২ পরবর্তী প্রজন্ম একুশের কৃষ্ণচূড়ার রঙেই বিপ্লব-রঙিন হয়েছিল। ১৯৫২ না এলে ১৯৬৯ ঘটার প্রয়োজনই হতো না। বাঙালিত্বের বোধ জাগ্রত না হলে ১৯৬৯-এ গণতান্ত্রিক চেতনা জাগ্রত হওয়ার প্রয়োজন ছিল না। এ কারণেই বারবার কবি ১৯৫২ আর বাংলা ভাষার কাছে ফিরে গেছেন। অনুভব করেছেন ১৯৫২ সালের রক্তস্নাত বাংলা ভাষাকে। অনুভব করেছেন বাংলা ভাষাই বাঙালির প্রাণ। ১৯৬৯ সালের রক্তদানে বাংলা ভাষা অর্থাৎ বাঙালি আবারও সেই ফুলেরই বন্দনা করল। এ কবিতায় কবি প্রতীকীভাবে দেখিয়েছেন বাংলা ভাষার মর্যাদা অক্ষুণ্ন থাকলে বাঙালি জাতি থাকবে। ঐতিহাসিক বায়ান্ন’র চেতনায় সবাই সচেতন থাকলে বাঙালি বারবার সালাম-বরকতের কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হবে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষায়। 

আবু সায়েম মো. জামিল, সহকারী অধ্যাপক, বাংলা বিভাগ, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, ঢাকা/ আবারার জাহিন

ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি এবং HTML অধ্যায়ের বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর- HSC তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

প্রকাশ: ২১ মে ২০২৪, ০৬:৪০ পিএম
ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি এবং HTML অধ্যায়ের বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর- HSC তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি
ছবি: সংগৃহীত

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

১. ওয়েব ব্রাউজার হলো-
i. গুগল ক্রোম ii. সাফারি iii. ইউটিউব
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

২. কোনটির ক্ষেত্রে ডোমেইন নেম ব্যবহার করা হয়?
ক. ওয়েবসাইট     খ. সার্ভার
গ. ওয়েব ফাইল     ঘ. ফোল্ডার

৩. একটি ওয়েবসাইটে কয়টি অংশ থাকে?
ক. ২টি     খ. ৩টি
গ. ৪টি     ঘ. ৫টি

৪. নিচের কোনটি ফাঁকা ট্যাগ?
ক. < th >     খ. < td >
গ. < br >     ঘ. < em >

৫. ছবি প্রদর্শনের ট্যাগ কোনটি?
ক. < ul >     খ. < ol >
গ. < img>     ঘ. < li >

৬. URL-এর অংশগুলো হলো-
i. প্রটোকল নেম    ii. হোস্ট নেম
iii. ডাইরেক্টরি নেম
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

৭. ওয়েবসাইটের একক ঠিকানা কোনটি?
ক. IP Address     খ. URL
গ. HTTP     ঘ. HTML

৮. ডোমেইন নাম কোনটি?
ক. ওয়েবসাইটের একটি স্বতন্ত্র নাম
খ. সার্ভারের নাম
গ. ওয়েব ফাইলের নাম
ঘ. ফোল্ডারের নাম

৯. একটি HTML ফাইলে-
i. শুরু ট্যাগ হিসেবে < html > থাকে
ii. প্রতি জোড়া শুরু ও শেষ ট্যাগ থাকে
iii. অ্যাট্রিবিউট শুরু ট্যাগে থাকে
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

১০. ওয়েবসাইট পাবলিশ করার জন্য এমন একটি সার্ভার কম্পিউটার রাখতে হয় যা-
i. সবসময় সচল থাকতে হয়
ii. সার্বক্ষণিক ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত থাকতে হয়
iii. পাবলিক আইপি অ্যাড্রেস থাকতে হয়
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

১১. নিচের কোন HTML কোডটি নতুন খালি উইন্ডোজ স্টার্ট করার জন্য অ্যাট্রিবিউট Value হিসেবে ব্যবহৃত হয়?
ক. target     খ. blank
গ. new     ঘ. href

১২. URL একটি ওয়েবপেজের কী?
ক. লিংক     খ. অ্যাড্রেস
গ. হোম পেজ     ঘ. সার্ভার

১৩. স্ট্যাটিক ওয়েবসাইটের বৈশিষ্ট্য কোনটি?
ক. ওয়েবপেজগুলোয় কনটেন্ট অনির্দিষ্ট থাকে
খ. ব্রাউজারে দ্রুত লোড হয়
গ. ডেটাবেইজ ব্যবহার করা যায়
ঘ. ইনপুট দেওয়ার ব্যবস্থা থাকে

১৪. কোন ওয়েবসাইট কাঠামোতে যেকোনো পেজ থেকে সরাসরি হোম পেজে যাওয়া যায়?
ক. Hierarchical     খ. Network
গ. Linear     ঘ. Combination

১৫. ব্রাউজকারীর সময় বাঁচে কোন ট্যাগে?
ক. < br >     খ. < a >
গ. < Li >     ঘ. < i >

১৬. < td > ট্যাগের সঙ্গে ব্যবহৃত অ্যাট্রিবিউট-
i. align    ii. face
iii. colspan
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

১৭. ওয়েবসাইট পাবলিশিংয়ে গৃহীত পদক্ষেপগুলো হচ্ছে-
i. ডোমেন নেম রেজিস্ট্রেশন করা
ii. ওয়েবপেজ ডিজাইন করা
iii. ওয়েবসাইট হোস্টিং করা
নিচের কোনটি সঠিক?
ক. i ও ii     খ. i ও iii 
গ. ii ও iii     ঘ. i, ii ও iii

১৮. ওয়েবপেজ প্রদর্শনে কী ব্যবহৃত হয়?
ক. ব্রাউজার     খ. PHP
গ. HTML     ঘ. ইন্টারপ্রেটার

১৯. ওয়েবপেজের মধ্যে লিংক করার ট্যাগ কোনটি?
ক. < a >     খ. < i >
গ. < href >     ঘ. < li >

২০. ওয়েবপেজের অ্যাড্রেসকে কী বলে?
ক. URL     খ. HTTP
গ. HTML     ঘ. WWW

২১. .edu দ্বারা কোন ধরনের ডোমেনকে বোঝায়?
ক. সামরিক     খ. সাংগঠনিক
গ. শিক্ষামূলক     ঘ. ব্যবসায়িক

২২. HTML-এর উদ্ভাবক কে?
ক. টিম বার্নার্স লি     খ. স্টিভ জবস
গ. মার্ক জাকারবার্গ     ঘ. বিল গেটস

২৩. HTML-এর ফাইল নামের এক্সটেনশন কোনটি হবে?
ক. .txt     খ. .net
গ. .html     ঘ. .php

২৪. নিচের কোন হেডিং ট্যাগের সাইজ সবচেয়ে ছোট?
ক. h1   খ. h3    গ. h5    ঘ. h6

২৫. সবচেয়ে বড় হেডিং ট্যাগ কোনটি?
ক. < h6 >     খ. < h5 >
গ. < h2 >     ঘ. < h1 >

২৬. ফন্টের নাম পরিবর্তন করতে কোন অ্যাট্রিবিউট ব্যবহৃত হয়?
ক. size     খ. font
গ. face     ঘ. name

২৭. ওয়েবসাইট হোস্টিং করে কোথায় রাখা হয়?
ক. র‍্যামে     খ. হোম পেজে
গ. হার্ডডিস্কে     ঘ. সার্ভারে

২৮. ওয়েবপেজের মধ্যে লিংক করার ট্যাগ কোনটি?
ক. < a >     খ. < i >
গ. < href >     ঘ. < li >

উত্তর: ১. ক, ২. ক, ৩. ক, ৪. গ, ৫. গ, ৬. ঘ, ৭. খ, ৮. ক, ৯. খ, ১০. ঘ, ১১. খ, ১২. খ, ১৩. খ, ১৪. খ, ১৫. খ, ১৬. খ, ১৭. ঘ, ১৮. ক, ১৯. ক, ২০. ক, ২১. গ, ২২. ক, ২৩. গ, ২৪. ঘ, ২৫. ঘ, ২৬. গ, ২৭. ঘ, ২৮. ক।

লেখক: সহকারী অধ্যাপক, রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ঢাকা /আবরার জাহিন