ঢাকা ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Khaborer Kagoj

সাগরিকায় বিপিএল রোমাঞ্চ

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৪৭ এএম
সাগরিকায় বিপিএল রোমাঞ্চ
ছবি : সংগৃহীত

চট্টগ্রামের পাহাড়তলীর সাগরিকা রোডে দাঁড়িয়ে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম। এই মাঠে এলে যে কারও মনে বাড়তি ভালো লাগার অনুভূতি কাজ করে। অদূরেই বঙ্গপোসাগরের সৈকত। সাগর তীরে দাঁড়ালে যেমন মন ভালো হয়ে যায়, এই মাঠে ক্রিকেট দেখার অনুভূতিও তাই।

গতকাল সোমবার রংপুর রাইডার্সের অনুশীলনের কথাই উল্লেখ করা যায়। বেলা ১টা মাঠে এসে এক ঘণ্টা ঘাম ঝড়ায় দলটির দেশি-বিদেশি খেলোয়াড়রা। পুরো মাঠে তখন ঝকঝকে রোদ। বসন্ত আসি আসি করছে। একদিকে শীত আর রোদের মিশেল। সঙ্গে সবুজ গালিচায় ব্যাট-বলের সুমধুর আওয়াজ। অন্তরে অন্য রকম ভালো লাগার অনুভূতি দোলা দিয়ে যায়।

রংপুর রাইডার্স মাঠ ছেড়ে যাওয়ার আগেই খুলনা টাইগার্সও মাঠে হাজির হয়েছিল প্রস্তুতি সারতে। আজ মঙ্গলবার সাগরিকার মাঠটিতে রাতের ম্যাচে মুখোমুখি হবে এই দুই দল। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। তার আগে বেলা দেড়টায় স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স খেলবে কুমিল্লা ভিক্টোয়ান্সের বিপক্ষে। এই দুই দল অনুশীলন করেছে সকালের মিষ্টি রোদ গায়ে মেখে।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এখানে বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মাঠের রূপও বদলায়। সকাল, দুপুর আর বিকেল- একটার সঙ্গে অন্যটার তুলনা করা যায় না। রংপুর ও খুলনা অনুশীলন সেরে চলে যাওয়ার পর যেমন কিউরেটর ও মাঠ কর্মীরা থেকে গেলেন। মাঠে তুলির শেষ আচড় দিচ্ছিলেন তারা। বেলা শেষের আলোয় সেই কর্মযজ্ঞও কম আকর্ষণীয় ছিল না। সূর্য তখন পশ্চিম দিকে হেলে পড়েছে। আগের দুই বেলার চেয়ে ভিন্ন রূপ মাঠে। প্রেসবক্স থেকে উইকেটগুলো দেখা যাচ্ছিল পরিস্কার। বেশির ভাগ উইকেটেই তখন পর্যন্ত ঘাস দৃশ্যমান। এমনকি যে উইকেটে আজ খেলা হবে, সেটাতেও ঘাসের সবুজাভ আভা টের পাওয়া যায়। শেষ মুহূর্তে এই রূপ বদলাবে কি না কে জানে? তবে ঢাকা-সিলেট-ঢাকা হয়ে বিপিএল এখন চট্টগ্রাম বলে এই উইকেট নিয়েও কিন্তু সবার কৌতূহল। চট্টগ্রামে বিপিএল মানেই যে রান উৎসব।

দর্শকরাও তাই চট্টগ্রাম পর্বের বিপিএলের কাছে একটু বেশি কিছুই চেয়ে থাকেন। শুধু দর্শকরা নয়, ক্রিকেটাররাও। শুভগত হোমের কথাই শুনুন। ঘরোয়া ক্রিকেটের অভিজ্ঞ এই সেনানীর নেতৃত্বেই খেলছে স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। কাল অনুশীলনের ফাঁকে তিনি বলেন, ‘শেষ কয়েক বছর থেকে যেটা দেখছি, এখানে হাইস্কোরিং ম্যাচ হচ্ছে। ১৮০-১৯০ রান হচ্ছে। আশাকরি সে রকম উইকেট এবারও পাব।’ খুলনা টাইগার্সের আকবর আলীও বলেছেন একই কথা, ‘চট্টগ্রামের উইকেট তো সচারচর ভালো থাকে। উইকেট দেখে ভালো লাগছে। ম্যাচ ডেতে যদি ভালো উইকেটে খেলা হয়, অবশ্যই রান হবে।’

শুভাগত-আকবরদের প্রত্যাশা পূরণ হলে চট্টগ্রামে আগামী ১২টি ম্যাচে দর্শক যে দারুণ কিছু দেখবে, সেটা বলাই যায়। কারণ বাড়তি রোমাঞ্চের বাতাবরণ ছড়িয়েই দলগুলো বন্দর নগরীতে এসেছে। বাংলাদেশের একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগটির দশম আসর এখন শেষের দিকে। ফের ঢাকায় ফিরে ২৩ ফেব্রুয়ারি এক দিনে দুটি ম্যাচ হওয়ার পরই শুরু হয়ে যাবে প্লে অফ পর্ব। তার আগে এই সাগরিকাতেই ঠিক হয়ে যাবে দলগুলোর ভাগ্য।

চট্টগ্রামের এই পর্ব তাই দলগুলোর জন্য প্লে-অফ নিশ্চিত করার মঞ্চ। অবশ্য এ মঞ্চ প্রস্তুত হওয়ার আগেই দুর্দান্ত ঢাকা ছিটকে গেছে বাজেভাবে ব্যর্থ হয়ে। বাকি ৬ দলই এখানে এসেছে প্লে-অফ খেলার সম্ভাবনা নিয়ে। গতবারের রানার্সআপ সিলেটের ভাগ্য অবশ্য সুতোয় ঝুলছে। তাদের সম্ভাবনাও ক্ষীণ। তবে আজ মাঠে নামতে যাওয়া চার দলের সঙ্গে ফরচুন বরিশালও দারুণভাবে লড়াইয়ে আছে। শেষ চারে যেতে পাঁচ দলের রোমাঞ্চকর এক লড়াইয়ের বার্তা মিলছে তাই এই পর্যায়ে এসে।

এখন চট্টগ্রামের উইকেটে যদি বরাবরের মতো আচরণ করে, তাহলে নিশ্চিতভাবেই এ রোমাঞ্চ বেড়ে যাবে ঢের। আর প্রতিটি ম্যাচই হবে দর্শকদের পয়সা উসুলের। তারার মেলাও একেবারে কম নেই এখানে। পিএসএলের ব্যস্ততা থাকায় বাবর আজম, মোহাম্মদ রিজওয়ানরা ফিরে গেছেন। তবে তাদের শূন্যতা ঢেকে দিয়েছেন ইমরাম তাহির, কেশব মহারাজ, জিমি নিশাম, ওয়েইন পারনেলের মতো আন্তর্জাতিক মঞ্চের বড় তারকারা।

ক্রিকেটের আগামী কটাদিন তাই সাগরিকার-এভাবে বোধ হয় বলাই যায়!

‘টাকার জন্য টি-টোয়েন্টি খেলেন স্মিথ’

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০১:০২ পিএম
‘টাকার জন্য টি-টোয়েন্টি খেলেন স্মিথ’
ছবি : সংগৃহীত

ওয়ার্নারের বিদায়ী টেস্টে তাকে নায়কোচিত সংবর্ধনার আয়োজন করায় তার বিরোধীতা করেন সাবেক অজি পেসার মিচেল জনসন। এবার তার সমালোচনার তীর ছুড়েছেন তিনি স্টিভেন স্মিথের দিকে। ৪২ বছর বয়সী সাবেক এই পেসারের মতে, টাকার জন্য টি-টোয়েন্টি খেলে যাচ্ছেন স্মিথ।

বিশ ওভারের ক্রিকেটে অভিজ্ঞ স্টিভে স্মিথের খেলার খেলার সামর্থ্য নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম দ্য নাইটলি’র এক কলামে জনসন লিখেন, ‘আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট কি সত্যিই সে খেলতে চায় কি না, তামি তাই ভাবছি। সাদা পোশাকের ক্যারিয়ার শেষে অবশ্যই তখন সে বিশ্বের বিভিন্ন লিগে খেলবে। যে কারণেই এখন মুলা ঝুলিয়ে রাখছে, যেন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ও বিশ্বকাপে ওর খেলার সম্ভাবনা বাড়ে।’

যথেষ্ট ভারসাম্যপূর্ণ অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান দল। তিন বিভাগেই তাদের ক্রিকেটাররা মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করা স্মিথের জায়গায় ভালো করছে তরুণরা। এমন অবস্থায় টপ অর্ডার ছাড়া দলে স্মিথের জায়গা দেখছেন না জনসন।

এ প্রসঙ্গে টেনে এনে জনসন লিখেন, ‘ওপেন করলে সে উইকেটে থিতু হতে যথেষ্ট সময় পাবে। সেখানে যদি টিকে যায়, তাহলে মাঠের সবদিকেই মারতে পারবে। অস্ট্রেলিয়ার বিস্ফোরক ব্যাটিং লাইনআপে ওপেনিং পজিশনটাই স্মিথের জন্য মানানসই হতে পারে। তবে তাকে ধারাবাহিক রান করতে হবে বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নিতে হলে।’

এই ফরম্যাটে স্মিথের ক্যারিয়ার খুব একটা প্রসিদ্ধ নয়। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৫৫ ইনিংসে ২৪.৮৬ গড় ও ১২৫.৪৬ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ১০৯৪ রান। সবশেষ নিউজিল্যান্ড সফরেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন স্মিথ। ওপেনিংয়ে সুযোগ পেয়েও করেছেন যথাক্রমে ১১ ও ৪ রান।

সাকিব-তামিমের ‘ফাইনাল’ লড়াই

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:২০ পিএম
সাকিব-তামিমের ‘ফাইনাল’ লড়াই
ছবি : সংগৃহীত

ফরচুন বরিশাল-রংপুর রাইডার্স দুই দল আজ মুখোমুখি হবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে। যতটা সহজভাবে কথাটা লেখা হয়েছে, লড়াইয়ের উত্তাপ এত কম নয়। কারণ, দেশের দুই বড় তারকা সাকিব আল হাসান আর তামিম ইকবাল যে আজ আবার মুখোমুখি হবেন এই ম্যাচে। দুই ক্রিকেটারের দ্বন্দ্ব ও বিশ্বকাপে তামিমের থাকা না থাকা নিয়ে বিতর্কের কারণে দুই দলের লড়াইয়ে যোগ করেছে বাড়তি উন্মাদনা। অবশ্য এই উন্মাদনা শুধু দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে নয়, ছিল রবিন লিগ রাউন্ডের ম্যাচেও। লিগ পর্বে দুই দলের লড়াইয়ে গ্যালারি ছিল কানায় কানায় পূর্ণ। মিরপুরের গ্যালারি যে আজ ফের কানায় কানায় পূর্ণ থাকবে, সেটা অবশ্য অনুমান করাই যায়। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার জিতে ফাইনালে ওঠার সুযোগ আছে দুই দলের সামনে। এই সমীকরণ আরও বেশি উন্মাদনা যোগ করবে দুই দলের লড়াইয়ে।

এবারের বিপিএলে বরিশাল-রংপুর লড়াইকে বারবার নামকরণ করা হয়েছে সাকিব-তামিম লড়াই হিসেবে। সাধারণ দর্শক থেকে সংবাদমাধ্যম সবাই বরিশাল-রংপুর ম্যাচে বারবার ফোকাসে এনেছে সাকিব-তামিমকে। দুই দলের দুই বড় তারকাকে সামনে আনা হলেও তাদের লড়াই অবশ্য হয়েছে (১-১) সমানে সমান। মিরপুরে প্রথম সাক্ষাতে তামিমের বরিশাল রংপুরকে হারায় ৫ উইকেটে। চট্টগ্রামে ফিরতি লড়াইয়ে ১ উইকেটে ম্যাচ জিতে সমতায় ফেরে সাকিবের দল।  রংপুরের জয়ের এই দিন তৈরি হয়ে খানিকটা বিতর্ক। তামিমকে আউট করে উদযাপন করেন সাকিব আল হাসান। পরে সাকিবের আউটের পর ওই উদযাপনের মিমিক্রি করেন তামিম ইকবাল। ফলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। কেউ তামিমের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন, কেউবা ধুয়ে দেন।

ফের একই উপলক্ষ এনে দিচ্ছে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে এই দুই দলের লড়াই। বিপিএলের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ এটি। সাকিব-তামিম লড়াইয়ে যার দল জিতবে তারা উঠবে ফাইনালে। সেখানে তাদের অপেক্ষায় আছে বিপিএলের সফলতম দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। যারা হারবে তাদের বিপিএল যাত্রা থামবে এখানেই। ফলে দুই দলের জন্য এটা ‘অলিখিত’ ফাইনাল।

এমন গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ের আগে কথা বলেন দুই দলের কোচ। দুই দলের গত লড়াইয়ে তামিম আউট হন সাকিবের বলে। অন্যদিকে ফজলহক ফারুকির বলে তামিমের আউট হওয়ার জুজু আছে। এটাকে মনস্তাত্ত্বিক লড়াই ভাবতে নারাজ বরিশাল কোচ মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, ‘এখানে বলে বলে খেলা হয়। তামিম যখন ব্যাটিং করে, কে বল করছে, সেটা দেখে না। সেটা ভালো বল না খারাপ বল, মানে ক্রিকেটাররা যখন ব্যাটিং করে বল দেখে খেলে। চেহারা দেখে ক্রিকেট খেলা হয় না।’ অন্যদিকে নিজেদের কম্বিনেশন নিয়ে মিজানুর বলেন, ‘দল অনুযায়ী পরিকল্পনা করা হয়। বাইরে থেকে যদি মনে করেন, কোনো পরিকল্পনা হচ্ছে না, তাহলে তো এটা ভুল ধারণা। প্রতিপক্ষ দলের শক্তি অনুযায়ী নিজের দলের পরিকল্পনা করা হয়। সে ক্ষেত্রে পরিকল্পনার মাঝেমধ্যে পরিবর্তন হয়।’ পাশাপাশি এই লড়াইকে সাকিব-তামিম লড়াইয়ের মর্যাদা দিতে চান না মিজানুর রহমান। বরং, এই ম্যাচকে দেখছেন বরিশাল-রংপুর লড়াই হিসেবে।

অন্যদিকে রংপুর রাইডার্স কোচ সোহেল ইসলামের মাথাতেও আছে একই ভাবনা। ব্যক্তির চেয়ে দলকে বড় হিসেবে দেখতে চান। এই ম্যাচে সাকিব-তামিমের পাশাপাশি স্পটলাইটে থাকবেন দেশি-বিদেশি অন্য ক্রিকেটাররাও। বরিশাল শিবিরে আছেন ডেভিড মিলার, কাইল মায়ার্স, ওবেদ ম্যাকয়, আহমেদ শেহজাদদের মতো বিদেশিরা। দেশিদের মধ্যে বরিশালের জার্সিতে মাঠ মাতাচ্ছেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজদের মতো ক্রিকেটাররা। শক্তির বিচারে ভারসাম্য আছে দলটিতে। 

অন্যদিকে রংপুরও পিছিয়ে নেই। নুরুল হাসান সোহান, শেখ মাহেদি, হাসান মাহমুদের মতো দেশিরা খেলছেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে। বিদেশি কোটাতেও বিশ্বমানের ক্রিকেটার আছে দলটিতে। তাদের হয়ে খেলবেন নিকোলাস পুরান, মোহাম্মদ নবী, ফজলহক ফারুকি, জিমি নিশামদের মতো ক্রিকেটাররা। দুই দলের ডেরায় থাকা বড় বড় নামে স্পষ্ট জমজমাট লড়াই উপহার দেবে দুই দল। তবে সব ছাপিয়ে লড়াইটা বারবারই পরিচিতি পাচ্ছে সাকিব-তামিম লড়াই হিসেবে।

হলান্ডের একক পারফরম্যান্সে বিধ্বস্ত লুটন

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৩৮ এএম
হলান্ডের একক পারফরম্যান্সে বিধ্বস্ত লুটন
ছবি : সংগৃহীত

এফএ কাপের ম্যাচে লুটন টাউনকে নিয়ে যেন আর্লিং হলান্ড একাই ছেলে খেলায় মেতেছিল। পঞ্চম রাউন্ডের ম্যাচে ৬-২ গোলের জয়ে তিনি একাই করেন  ৫ গোল। তার করা পাঁচ গোলের প্রতিটিই এসেছে কেভিন ডি ব্রুইনার অ্যাসিস্টে। অন্য গোলটি করেন মাতেও কোভাচিচ।

গেল বছর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিপজিগের বিপক্ষে এমন কীর্তি গড়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো ক্যারিয়ারে এক ম্যাচে পাঁচ গোল করলেন হালান্ড।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) লুটনের মাঠে শুরু থেকেই দাপুটে ছিল ম্যানসিটি। ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটেই কেভিন ডি ব্রুইনার বাড়ানো বলে জাল খুঁজে নেন আর্লিং হালান্ড। আবারও ডি ব্রুইনার পাস থেকে ১৮ মিনিটে গোল করেন নরওয়েজিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই ম্যাচে ৪০তম মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিকপূর্ণ করেন হলান্ড। হলান্ডে চাপে থাকা লুটন একটি গোল শোধ করে বিরতিতে যাওয়ার আগে। স্বাগতিকদের হয়ে গোলের দেখা পান জর্ডান ক্লার্ক।

বিরতি থেকে ফিরে লড়াই জমিয়ে তোলার আভাস দেন ক্লার্ক আরেকবার সিটির জালে বল জড়িয়ে।

কিন্তু তা হতে দেয়নি আর্লিং হালান্ড। ৫৫ ও ৫৮ মিনিটে আরো দুইবার বল জালে পাঠিয়ে ম্যানসিটিকে এগিয়ে নেন ৫-২ ব্যবধানে। হালান্ডের এই দুই গোলেও সহায়তা করেন ডি ব্রুইন।

হলান্ডের দিলে ৭২ মিনিটে আরো একটি গোল পেয়ে যায় ম্যানসিটি। কোভাচিচের পা থেকে। জন স্টন্সের পাসে লক্ষ্যভেদ করেন ক্রোয়েশিয়ান এই মিডফিল্ডার।

দুর্দান্ত খেলতে থাকা হলান্ডকে ৭৭তম মিনিটে তুলে নিয়ে হুলিয়ান আলভারেজকে মাঠে নামান পেপ গার্দিওলা। তাতে আর ব্যবধান বাড়াতেনা পারলে ৬-২ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ম্যানচেস্টার সিটি। 

টাইগারদের নতুন কোচ হেম্প-অ্যাডামস

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৫০ এএম
টাইগারদের নতুন কোচ হেম্প-অ্যাডামস
ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় দলের নতুন ব্যাটিং ও পেস বোলিং কোচের নাম ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি জানিয়েছে, ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে নিয়োগ পেয়েছেন সাবেক বারমুডিয়ান ব্যাটার ডেভিড হেম্প ও পেস বোলিং কোচের দায়িত্বাভার এসেছে হিসেবে নিউজিল্যান্ডের সাবেক পেস অলরাউন্ডার আন্দ্রে অ্যাডামসের কাঁধে।

নতুন দুই কোচের সঙ্গেই দুই বছরের জন্য চুক্তি করেছে বিসিবি। আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজ দিয়ে দলের সাথে কাজ শুরু করবেন তারা। আগামী ৪ মার্চ টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু হবে দুই দলের সিরিজ।

এর আগে, বাংলাদেশ এইচপি দলের কোচ ছিলেন ডেভিড হেম্প। নিউজিল্যান্ড সফরেও ছিলেন তিনি জাতীয় দলের ভারপ্রাপ্ত ব্যাটিং কোচ হিসেবে। এছাড়াও দায়িত্ব পালন করেছেন পাকিস্তান নারী ক্রিকেট দলের হেড কোচ হিসেবে।

অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ড নারী দলের পেস বোলিং কোচ ছিলেন সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত টাইগারদের নতুন বোলিং কোচ অ্যাডামস। খণ্ডকালীন পেস বোলিং কোচ হিসেবে যুক্ত ছিলেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলেও। 

এবার যুক্তরাষ্ট্রে বাতিল আর্জেন্টিনার ম্যাচ

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:২৩ এএম
এবার যুক্তরাষ্ট্রে বাতিল আর্জেন্টিনার ম্যাচ
ছবি : সংগৃহীত

নাটকীয়তা থামছেই না আর্জেন্টিনার পরবর্তী প্রীতি ম্যাচের সূচি নিয়ে। ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল চীনে। কিন্তু ইন্টার মায়ামির হয়ে লিওনেল মেসি প্রাক্–মৌসুম প্রস্তুতি ম্যাচে হংকংয়ে গিয়েও মাঠে না নামায় শুরু হয় বিতর্ক। আর্জেন্টিনার চীন সফরে মেসি যদি না খেলেন এই অনিশ্চয়তায় সেখানে হতে যাওয়া পূর্বনির্ধারিত ম্যাচ দুটি বাতিল করে দেয় চীন। পরবর্তীতে সেই ম্যাচের ভেন্যু যুক্তরাষ্ট্র ঠিক করা হলেও, এবার বাতিল হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে হতে যাওয়া আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া  ম্যাচটিও।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন জানিয়েছে, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রে খেলবে না তারা। যদিও, সমস্যাটি আর্জেন্টিনা দলের নয়। মূলত নাইজেরিয়া দলের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ভিসাজনিত জটিলতা তৈরি হওয়াতেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এএফএ।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি বাতিল হলেও সূচি অনুযায়ী আগামী মার্চে মার্কিন মুলুকে প্রীতি ম্যাচ দুটোই খেলবে বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা। নাইজেরিয়ার পরিবর্তে এখন কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলবে তিনবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

এই ব্যাপারে এএফএ জানিয়েছে, আগামী মাসের ২২ তারিখ এল সালভাদরের বিপক্ষে প্রথম প্রীতি ম্যাচটি খেলবে আর্জেন্টিনা ফিলাডেলফিয়ার লিংকন ফাইন্যান্সিয়াল ফিল্ডে। চার দিন পর ২৬ মার্চ লস অ্যাঞ্জেলেস কলোসিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলবেন মেসিরা।

আগামী জুনে কোপা আমেরিকার আগে ইকুয়েডর ও গুয়াতেমালার বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রেই দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে আলবিসেলেস্তেরা। ৯ জুন শিকাগোর সোলজার ফিল্ডে ইকুয়েডরের বিপক্ষে ও ১৪ জুন মেরিল্যান্ডের ল্যান্ডোভারের ফেডএক্স ফিল্ডে গুয়াতেমালার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা।