ঢাকা ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

উইন্ডোজ থেকে আনইনস্টল করা যাবে ওয়ানড্রাইভ

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০২৪, ১১:৩৮ এএম
উইন্ডোজ থেকে আনইনস্টল করা যাবে ওয়ানড্রাইভ

আমেরিকান সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম থেকে ওয়ানড্রাইভ অ্যাপ্লিকেশন আনইনস্টল করার সুবিধা চালু করেছে। এর আগে অপারেটিং সিস্টেমটিতে ওয়ানড্রাইভ অ্যাপ্লিকেশন প্রি-ইনস্টল করা থাকত। বেশ কয়েক বছর ধরেই উইন্ডোজের স্ট্যান্ডার্ড ক্লাউড স্টোরেজ সলিউশন হিসেবে অ্যাপ্লিকেশনটি চাপিয়ে দিচ্ছিল প্রতিষ্ঠানটি। ফলে অপারেটিং সিস্টেমটি থেকে এই অ্যাপ্লিকেশন সরিয়ে ফেলা সম্ভব ছিল না। এটি অনেক ব্যবহারকারীর কাছে বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। মাইক্রোসফট অ্যাপ্লিকেশনটিকে উইন্ডোজ থেকে বন্ধ, নিষ্ক্রিয় বা আনইনস্টল করার বিস্তারিত নির্দেশনা দিয়েছে।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট নিওউইন সর্বপ্রথম এই ফিচার লক্ষ করে। কোম্পানিটির ট্রাবলশুটিং গাইডলাইনে এই সেবা বাদ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এখানে কয়েক ধাপে ওয়ানড্রাইভ বন্ধ, নিষ্ক্রিয় বা আনইনস্টল করার পদ্ধতি উল্লেখ করা হয়েছে। যারা এই সেবা ব্যবহার করতে চান না, তাদের উইন্ডোজে এটি ‘আনলিংক’ করার পরামর্শ দিয়েছে মাইক্রোসফট। ওয়ানড্রাইভ আনলিংক করার পরও ওয়ানড্রাইভ থেকে ফাইল অ্যাকসেস করতে পারবেন এর ব্যবহারকারীরা।

যারা ওয়ানড্রাইভ ব্যবহার করতে চান না, তারা এটিকে ‘হাইড বা লুকাতে’ পারবেন। ফলে ওয়ানড্রাইভ অ্যাপ্লিকেশনটি চোখে পড়বে না, তবে ব্যবহারকারীরা ওয়েব ব্রাউজারের মাধ্যমে তাদের ওয়ানড্রাইভ ফাইলগুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

যদিও নির্দেশনাটিতে কিছু পরস্পরবিরোধী তথ্য ওঠে এসেছে। ওই নির্দেশনায় প্রাথমিকভাবে বলা হয়েছে, ওয়ানড্রাইভ ডিফল্টভাবে উইন্ডোজ ১০ বা ১১-এর সঙ্গে যুক্ত এবং এটিকে আনইনস্টল করা যাবে না। শুধু হাইড বা লুকানো যাবে। এরপরে আবার স্পষ্ট করে বলা হয়েছে, ওয়ানড্রাইভ আনইনস্টল করলেও সংরক্ষিত কোনো ডেটা হারানোর কোনো ঝুঁকি নেই। উইন্ডোজ ১০ ও ১১ ব্যবহারকারীরা এখন ওয়ানড্রাইভ সম্পূর্ণভাবে আনইনস্টল করতে পারবেন। তবে ধারণা করা হচ্ছে, উইন্ডোজ ৮.১-এর ব্যবহারকারীরা ওয়ানড্রাইভ আনইনস্টল করতে পারবেন না।

ওয়ানড্রাইভ আনইনস্টল করার পদ্ধতি:
উইন্ডোজ সেটিংসে যান।
‘অ্যাপস’ অপশনে ক্লিক করুন।
‘অ্যাপস ও ফিচার’ তালিকায় ‘মাইক্রোসফট ওয়ানড্রাইভ’ খুঁজুন।
‘আনইনস্টল’ বাটনে ক্লিক করুন।
নিশ্চিতকরণের জন্য ‘আনইনস্টল’ বাটনে আবার ক্লিক করুন।

জাহ্নবী

ডব্লিউএসআইএস পুরস্কার গ্রহণ করলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২৪, ০৪:২২ পিএম
ডব্লিউএসআইএস পুরস্কার গ্রহণ করলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী
ছবি : সংগৃহীত

জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি (ডব্লিউএসআইএস) পুরস্কার ২০২৪ গ্রহণ করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এ পুরস্কার গ্রহণ করেন তিনি।

চলতি বছর বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের সিকিউর ভিডিও কনফারেন্সিং সিস্টেম (বৈঠক) তৈরির জন্য বিল্ডিং কনফিডেন্স অ্যান্ড সিকিউরিটি ইন ইউস অব আইসিটি’স ক্যাটেগরিতে উইনার হিসেবে এ পুরস্কার দেওয়া হয়।

বৈঠক অ্যাপ তৈরিতে যুক্ত বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের প্রোগ্রামারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ অতিমারি কর্তৃক সৃষ্ট চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবেলা করার জন্য বিসিসি উদ্ভাবিত ‘বৈঠক’ আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় প্লাটফর্ম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে।
 
তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঠিক দিক-নির্দেশনায় খুব অল্প সময়ে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের সফল বাস্তবায়ন করতে পেরেছি এবং এর ফলে আমাদের তরুণ উদ্ভাবকরা তথ্য প্রযুক্তির সফল বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে পারছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে জমা দেওয়া এক হাজার ৪৯টি প্রকল্প বা উদ্যোগ থেকে বাছাই করে ৩৬০টি প্রকল্পকে ভোটাভুটির জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

ডব্লিউএসআইএস পুরস্কার নির্ধারণে প্রত্যেক ক্যাটাগরিতে একাধিক উদ্যোগ বা প্রোজেক্টকে ভোটের মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নির্বাচন করা হয়। এর মধ্যে থেকে একটিকে উইনার হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এবছর ১৮টি প্রোজেক্টকে উইনার ও ৭২টি প্রোজেক্টকে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে পুরস্কৃত করা হয়।
 
এর আগে প্রতিমন্ত্রী ডব্লিউএসআইএস+২০ ফোরামে ডিপিআই হাই-লেভেল সেশন এবং মিনিস্ট্রিয়াল রাউন্ডটেবিলে অংশ নেন। সূত্র: বাসস

অমিয়/

নকিয়া ফাইভ-জি রেডিও সরঞ্জাম সরবরাহ করবে এমইও-কে

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২৪, ০২:৩০ পিএম
নকিয়া ফাইভ-জি রেডিও সরঞ্জাম সরবরাহ করবে এমইও-কে
ছবি: সংগৃহীত


পর্তুগালের শীর্ষস্থানীয় মোবাইল অপারেটর এমইও-এর সঙ্গে ফাইভ-জি রেডিও সরঞ্জাম সরবরাহের চুক্তি করছে ফিনল্যান্ডের টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান নকিয়া। আগামী মাসেই এ চুক্তির ঘোষণা আসতে পারে। ফিনল্যান্ডের টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানটির এক ব্লগ পোস্টের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

এর আগে পর্তুগালের মোবাইল অপারেটরের কাছে টু-জি, থ্রি-জি ও ফোর-জি রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক (আরএএন) সরঞ্জাম সরবরাহ করেছে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। এমইও ফ্রান্সের আলটিসের মালিকানাধীন, এটি আগে ‘টেলিকম পর্তুগাল’ নামে পরিচিত ছিল।

নকিয়ার মোবাইল নেটওয়ার্ক বিভাগের প্রেসিডেন্ট টমি উইটো এক ব্লগে লিখেছেন, ‘গত কয়েক বছরে এমইও শুধু রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক সরঞ্জাম কিনেছে হুয়াওয়ের কাছ থেকে। চীনা প্রতিষ্ঠানটি টু-জি, থ্রি-জি ও ফোর-জি নেটওয়ার্ক সরঞ্জামের শতভাগ বাজার দখল করেছে। বর্তমানে পর্তুগালের বাজারে হুয়াওয়ের জায়গাগুলো দখলে আমরা কাজ করছি।’

এ বাজারে টেলিযোগাযোগ সরঞ্জাম সিংহভাগ সরবরাহ করে নকিয়া, হুয়াওয়ে ও সুইডিশ প্রতিষ্ঠান এরিকসন। তবে গত বছর থেকে টেলিযোগাযোগ কোম্পানিগুলোর নতুন সরঞ্জামের চাহিদা কমে যাওয়ায় নকিয়া ও এরিকসন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে এসব প্রতিষ্ঠান হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে বাধ্য হয়েছে।

গবেষণা সংস্থা ডেল-ওরো জানিয়েছে, ২০২৪ সালে বিশ্বব্যাপী রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক সরঞ্জামের বাজারের আকার ৫ থেকে ৮ শতাংশ কমে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে। 
যদিও নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও কয়েকটি ইউরোপীয় দেশে হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে এখনো ইউরোপে কিছু দেশে চীনা প্রতিষ্ঠানটি এসব সরঞ্জাম সরবরাহ করছে।

অনেক বছর আগে হুয়াওয়ের কাছে এই বাজার হারিয়েছিল নকিয়া। এরপর থেকে পর্তুগালের কোনো টেলিযোগাযোগ সেবাদাতাকে এ ধরনের সরঞ্জাম সরবরাহ করেনি প্রতিষ্ঠানটি। অবশ্য সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, নতুন এই চুক্তির মাধ্যমে নকিয়া আবার পর্তুগালের রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক বাজার ফিরে পাবে।

/আবরার জাহিন

মেটার স্মার্ট চশমা দিয়ে ছবি পোস্ট করা যাবে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২৪, ০৭:৩০ পিএম
মেটার স্মার্ট চশমা দিয়ে ছবি পোস্ট করা যাবে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মেটার তৈরি স্মার্ট চশমা ‘রে-ব্যান মেটা স্মার্ট গ্লাস’ দিয়ে সরাসরি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ছবি পোস্ট করা যাবে। স্মার্ট চশমাটিতে বেশ কিছু ‘হ্যান্ড ফ্রি’ ফিচার যুক্ত করার কথা জানিয়েছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি। অর্থাৎ এসব ফিচার চালানোর জন্য হাতের ব্যবহার করতে হবে না। গত সপ্তাহে মেটা এ ঘোষণা দিয়েছে।

ব্যবহারকারীরা এখন থেকে ফোন না বের করেই এই স্মার্ট চশমা দিয়ে সরাসরি ছবির ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে শেয়ার করতে পারবেন। স্মার্ট গ্লাস দিয়ে ছবি তোলার পর ‘হেই মেটা, শেয়ার মাই লাস্ট ফটো টু ইনস্টাগ্রাম’ এই কথা বলে নির্দেশ দিতে হবে। অথবা ‘হেই মেটা, পোস্ট আ ফটো টু ইনস্টাগ্রাম’ বলেও নির্দেশ দেওয়া যাবে। নির্দেশ দেওয়ার পর রে-ব্যান স্মার্ট চশমা থেকে সরাসরি ইনস্টাগ্রামে স্টোরি পোস্ট হয়ে যাবে।

স্ন্যাপচ্যাটেও ২০১৬ সালে এমন ধরনের ফিচার চালু করা হয়েছে। ‘স্ন্যাপ স্পেকট্যাকলস’ নামের ফিচার ব্যবহার করে ব্যবহারকারী তার স্মার্ট চশমা দিয়ে ছবি ও ভিডিও ধারণ করে স্ন্যাপচ্যাট স্টোরি দিতে পারেন। 

হ্যান্ড ফ্রি ফিচারের মাধ্যমে ফোন ব্যবহার না করেই রে-ব্যান ব্যবহারকারীরা অ্যামাজন মিউজিকে ভয়েস কমান্ড দিয়ে গান বাজাতে পারবেন। এ জন্য ‘হেই মেটা, প্লে অ্যামাজন মিউজিক’ এই ভয়েস কমান্ড দিতে হবে। ফোন পকেটে থাকাকালীন টাচ বা ভয়েস কন্ট্রোল দিয়ে অডিও প্লেব্যাক নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। মেডিটেশন অ্যাপ ‘কাম’ এ রে-ব্যান স্মার্ট চশমা যুক্ত করা যাবে, যা ‘হেই মেটা, প্লে দ্য ডেইলি কাম’ বললেই চালু হয়ে যাবে। স্মার্ট চশমাগুলোয় এআই আপডেট দেওয়ার এক মাস পর এসব নতুন ফিচার চালু করা হলো। 

এই এআই আপডেটে মেটা স্মার্ট চশমায় মাল্টিমোডাল এআই যুক্ত করেছে। যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা যা দেখছেন, সে সম্পর্কে প্রশ্ন করে জানতে পারবেন। সূত্র: টেকক্রাঞ্চ

/আবরার জাহিন

নতুন ফিচারে আসছে আইফোন এসই৪

প্রকাশ: ২৭ মে ২০২৪, ০৫:০৯ পিএম
নতুন ফিচারে আসছে আইফোন এসই৪
ছবি: সংগৃহীত

আমেরিকার প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপলের মধ্যম বাজেটের স্মার্টফোন সিরিজ ‘আইফোন এসই’। প্রধান আইফোন সিরিজের চেয়ে অনেক কম দামের জন্য এই সিরিজ বেশ পরিচিত। এবার এই বাজেটের স্মার্টফোনের বাজার ধরতে ‘আইফোন এসই৪’ উন্মোচন করতে যাচ্ছে টেক জায়ান্টটি। এতে ফেসটাইম, আইমেসেজ, অ্যাপল টিভি ও অ্যাপল আর্কেডের মতো আইফোনের মূল মডেলগুলোর বিভিন্ন ফিচার থাকবে। এসই সিরিজের চতুর্থ প্রজন্মের ফোনটি আগামী বছরের শুরুর দিকে বাজারে আসবে।

অ্যাপলের বরাত দিয়ে টেকটাইমস জানিয়েছে, আসন্ন আইফোন এসই তৈরিতে কানাডিয়ান কোম্পানি ইলিসিসের কার্বন-মুক্ত অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা  প্রায় দুই বছর আগে অ্যাপলের তৃতীয় প্রজন্মের আইফোন এসই বাজারে এসেছে। বর্তমানে অনলাইন দুনিয়ায় চতুর্থ প্রজন্মের আইফোন এসই সিরিজ নিয়ে নতুন করে জল্পনা-কল্পনা চলছে। বর্তমানে গুগল পিক্সেল ও স্যামসাংয়ের এ সিরিজ মধ্যম বাজেটের  স্মার্টফোনের বাজার দখলে রেখেছে। আইফোন এসই৪  প্রতিযোগিতামূলক দাম ও উন্নত ফিচারের জন্য আবারও এ বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে আসবে এমনটাই মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ধারণা করা হচ্ছে, এই ফোনের ডিজাইনে ২০১৮ সালের অন্য আরেকটি আইফোনের ডিজাইনের ছাপ থাকতে পারে। টেক জায়ান্টটির তথ্য প্রকাশকারী প্রতিষ্ঠান ম্যাকরিউমার জানিয়েছে, স্মার্টফোনটিতে ফেসআইডির পরিবর্তে আইফোন ১৪-এর মতো টাচআইডির হোম বাটন যুক্ত করা হবে। সিপিইউ হিসেবে আইফোন ১৩-এর মতো এ১৫ বায়োনিক চিপ থাকবে। এতে ব্যবহার করা হবে ওএলইডি প্রযুক্তির ৬ দশমিক ১ ইঞ্চির ডিসপ্লে। তৃতীয় প্রজন্মের এসই স্মার্টফোনের ক্যামেরা ছিল ১২ মেগাপিক্সেলের। এসই৪-এ যুক্ত করা হবে সিঙ্গেল লেন্সের ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

বাজারে আসতে যাওয়া নতুন ফোনটির মূল্য এর আগের তৃতীয় প্রজন্মের মতোই থাকবে বলে জানা গেছে। রেভেগনাসের তথ্য অনুযায়ী, এসই৪-এর দাম হতে পারে ৪২৯ ডলার, যা তৃতীয় প্রজন্মের ফোনের চেয়ে মাত্র ১০ শতাংশ বেশি। আইফোন ১৫ যে দামে শুরু হয়, তার থেকে ৩২০ ডলারেরও বেশি কমে চতুর্থ প্রজন্মের আইফোন এসই৪ বাজারে আসতে পারে।

/আবরার জাহিন

 

কেনিয়া থেকে অস্ট্রেলিয়া পর্যন্ত ফাইবার অপটিক কেবল স্থাপন করবে গুগল

প্রকাশ: ২৬ মে ২০২৪, ০৮:৩৭ পিএম
কেনিয়া থেকে অস্ট্রেলিয়া পর্যন্ত ফাইবার অপটিক কেবল স্থাপন করবে গুগল
ছবি: সংগৃহীত

কেনিয়া থেকে অস্ট্রেলিয়া পর্যন্ত একটি ফাইবার অপটিক কেবল চালু করার পরিকল্পনা করছে টেক জায়ান্ট গুগল। ‘উমোজা’ প্রকল্পের মাধ্যমে এই রুটের পার্শ্ববতী কয়েকটি আফ্রিকান দেশেও সংযোগ দেওয়া হবে। গত বৃহস্পতিবার টেক জায়ান্টটি এই ঘোষণা দেয়।

গুগল জানিয়েছে, আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়াকে সংযোগকারী ফাইবার অপটিক কেবল নির্মাণ করবে। উমোজা প্রকল্পের আওতায় এই কেবল নেটওয়ার্ক কেনিয়া থেকে শুরু হয়ে উগান্ডা, রুয়ান্ডা, কঙ্গো গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র, জাম্বিয়া, জিম্বাবুয়ে ও দক্ষিণ আফ্রিকা হয়ে ভারত মহাসাগর পাড়ি দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছাবে। এসব দেশেও সংযোগ স্থাপনের ব্যবস্থা থাকবে। ‘উমোজা’ সোয়াহিলি ভাষার শব্দ, যার অর্থ ‘ঐক্য’।

গুগল আরও জানিয়েছে, ‘আফ্রিকাজুড়ে  ডিজিটাল সংযোগ বৃদ্ধি, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করা এবং আরও শক্তিশালী নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে এ প্রকল্পটি হাতে নেওয়া হয়েছে।’ কেবল সংযোগের পাশাপাশি গুগল কেনিয়া সরকারের সঙ্গে সাইবার সুরক্ষা, তথ্যভিত্তিক উদ্ভাবন,  ডিজিটাল দক্ষতা বৃদ্ধি এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) দায়িত্বশীল ও নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য কাজ করবে। সমুদ্রের তলদেশে চলমান গুগলের আরেকটি প্রকল্প ‘ইকুইনো’-এর সঙ্গে যুক্ত হবে উমোজা কেবল নেটওয়ার্ক । ইকুইনো পর্তুগাল থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা পর্যন্ত বিস্তৃত।

গুগল জানিয়েছে, এই অঞ্চলের নেটওয়ার্ক আরও স্থিতিশীল করতে এই নতুন রুট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কারণ অতীতে এ অঞ্চলে নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হওয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। যত বেশি অতিরিক্ত কেবল নেটওয়ার্ক থাকবে, তত কম ক্ষতিগ্রস্ত হবে অঞ্চলটির ব্রডব্যান্ড অবকাঠামো।

গুগল ব্লগ পোস্টে কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম রুটো লিখেছেন, ‘এই নতুন আন্তর্মহাদেশীয় ফাইবার অপটিক রুটটি আমাদের অবকাঠামোকে উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নত করবে। বিশেষ করে সাম্প্রতিক কেবল নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হওয়ার ফলে ইন্টারনেট পরিষেবায় সমস্যা তৈরি হয়। এর প্রেক্ষিতে আমাদের অঞ্চলের বাকি বিশ্বের সঙ্গে সংযোগের স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে এই উদ্যোগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ডিজিটাল মেরুদণ্ড শক্তিশালীর মাধ্যমে কেবল নির্ভরযোগ্যতা বাড়াচ্ছি না বরং আমাদের জনগণ ও ব্যবসার জন্য আরও বেশি ডিজিটাল উদ্ভাবন ও অর্থনৈতিক সুযোগের পথও প্রশস্ত করছি।’ সূত্র: রয়টার্স